• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • কুপন মেলেনি, রেশন না পেয়ে রাস্তায় বসে বিক্ষোভ বাসিন্দাদের

কুপন মেলেনি, রেশন না পেয়ে রাস্তায় বসে বিক্ষোভ বাসিন্দাদের

ডিজিটাল রেশন কার্ড হাতে আছে, তবুও মিলছে না রেশন

ডিজিটাল রেশন কার্ড হাতে আছে, তবুও মিলছে না রেশন

ডিজিটাল রেশন কার্ড হাতে আছে, তবুও মিলছে না রেশন

  • Share this:

#বর্ধমান: ডিজিটাল রেশন কার্ড হাতে আছে, তবুও মিলছে না রেশনের চাল চিনি আটা কেরোসিন। অনেকে রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করেছিলেন। এখনও ডিজিটাল কার্ড হাতে মেলেনি, তাঁরাও পাচ্ছেন না রেশনের কুপন। বার বার প্রশাসনের দুয়ারে ঘুরেও রেশনের খাদ্য সামগ্রী পাবার কোনও আশ্বাস দেখতে না পেয়ে এবার বর্ধমানের জেলা খাদ্য দপ্তরের সামনে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন জেলার বাসিন্দারা। অনেকে জেলা খাদ্য দফতরের সামনে জি টি রোডের উপর বসে বিক্ষোভ দেখান। পুলিশ গিয়ে বুঝিয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে চাইলে পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন তাঁরা।

বাসিন্দাদের অভিযোগ, এই লক ডাউন পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকার সকলের জন্য খাদ্য নিশ্চিত করতে রেশনে বিনা মূল্যে খাদ্য সামগ্রী দিচ্ছে। অথচ যারা প্রকৃত পক্ষে রেশন পাওয়ার অধিকারী তাদের ফিরিয়ে দিচ্ছে রেশন ডিলার। যাদের ডিজিটাল রেশন কার্ড রয়েছে তাদের অনেককেই বলা হচ্ছে এখনও তালিকায়ও নাম ওঠেনি। খাদ্য দপ্তর থেকে লিখে আনতে হবে।

অনেকে আবার এখনও নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ড হাতে পাননি। ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করেছিলেন, আবেদন মঞ্জুর হয়েছে অথচ কার্ড হাতে পৌঁছায়নি তাদের জন্য বিশেষ কুপন ইস্যু করা হবে বলে জানিয়েছিল জেলা প্রশাসন। শহরের ক্ষেত্রে পৌরসভা অফিস থেকে এবং গ্রামীণ এলাকায় ব্লক অফিস থেকে সেই কুপন বিতরণ করা হবে বলে আগেই ঘোষণা করেছিল জেলা প্রশাসন। অথচ পৌরসভা বা ব্লক অফিসে সেই কুপন মিলছে না বলে অভিযোগ বাসিন্দাদের।

তাঁরা বলছেন, পুরসভা বা ব্লক অফিসে গেলে বলা হচ্ছে খাদ্য দপ্তরে যোগাযোগ করুন। খাদ্য দপ্তর বলছে যাবতীয় কুপন পুরসভা এবং ব্লকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এখান থেকে কোনও কুপন বিলি করা হচ্ছে না। তাহলে আমরা যাব কোথায়? কিভাবেই বা রেশন মিলবে? খাদ্য দফতরেও তেমন কোনও সদুত্তর না পেয়ে বিরক্ত রেশন গ্রাহকরা রাস্তায় বসে পড়েন। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, ইতিমধ্যেই কুপন বিতরণ শুরু হয়ে গিয়েছে। ওই ব্যক্তিরা এখনও কেন রেশন পাচ্ছেন না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Saradindu Ghosh

Published by:Ananya Chakraborty
First published: