ভোটের বালাই একেই বলে, প্রচারে বেড়িয়ে ঘুঁটেও দিলেন বিজেপি প্রার্থী!

ঘুঁটে দিচ্ছেন বিজেপি প্রার্থী

সেখানে গিয়ে প্রতিশ্রুতি যেমন থাকছে ভুড়িভুড়ি, তেমনি থাকছে সকল প্রার্থীরই নিজেকে 'কাছের মানুষ' প্রমাণের চেষ্টা।

  • Share this:

    #আরামবাগ: নবান্ন দখলের লড়াই। আর সেই লড়াইতে তৃণমূল যখন ক্ষমতা ধরে রাখতে আত্মবিশ্বাসী, তখন বিজেপির দাবি 'এবার ২০০ আসন আসছেই'। আর সেই লড়াইয়ের প্রস্তুতি এখন জোরকদমে। প্রার্থীরা পৌঁছে যাচ্ছেন ভোটারদের দুয়ারে। সেখানে গিয়ে প্রতিশ্রুতি যেমন থাকছে ভুড়িভুড়ি, তেমনি থাকছে সকল প্রার্থীরই নিজেকে 'কাছের মানুষ' প্রমাণের চেষ্টা। আর তা করতে গিয়েই আরামবাগের বিজেপি প্রার্থী মধুসূদন বাগ যা করলেন, তাতে তাজ্জব অনেকেই।

    কী করেছেন মধুসূদন বাবু? ভোট প্রচারে বেড়িয়ে তিনি দেখতে পান, গ্রামের এক মহিলা ঘুঁটে দিচ্ছেন। তিনি যে আরামবাগের মানুষের কতটা কাছের, তা বোঝাতেই সেই মহিলার সঙ্গেই ঘুঁটে দিতে শুরু করেন তিনি। হকচকিয়ে যান দলের কর্মীরাও। কিন্তু এখানেই থেমে থাকেননি বিজেপি প্রার্থী। গ্রামের একটি বাড়িতে গরু দেখা মাত্রই দুধ দুইতে বসে পড়েন তিনি, খড়ও কাটেন। সেই ছবিই এখন সোশ্য়াল মিডিয়ায় ভাইরাল।

    আরামবাগে নিঃসন্দেহে এবার টাফ ফাইট। বিজেপি যখন মধুসূদন বাগকে প্রার্থী করেছে, তৃণমূল সেখানে প্রার্থী করেছে সদ্য বিজেপি থেকে তৃণমূলে ফেরা, তথা বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ-এর স্ত্রী সুজাতা খাঁ'কে। আরামবাগ এলাকা হাতের তালুর মতো চেনেন সুজাতা। তাই প্রচারে কোনও ফাঁক রাখতে চাইছেন না মধুসূদন বাবু। আর সেই সূত্রেই ঘুঁটে দেওয়া থেকে শুরু করে দুই দোয়ানো - বাদ রাখছেন না কিছুই।

    তবে, এই চিত্র শুধু বাংলায় নয়, ভোটের তামিলনাড়ুতেও দেখা মিলেছে এমন ধরনেরই আজব কাণ্ডকারখানার। ভোটপ্রার্থী নিজেই মাটিতে রীতিমতো থেবড়ে বসে কেচে দিলেন জনতা জনার্দনের জামা-কাপড়! সোমবার নির্বাচনী প্রচারে বেড়িয়ে AIADMK প্রার্থী থাঙ্গা কাথীরবন প্রকাশ্যে জনতার জাম-কাপড় ধুতে শুরু করে দেন। একইসঙ্গে তিনি প্রতিশ্রুতি দেন, 'নির্বাচনে জিতলে এলাকার সবার বাড়িতে দেওয়া হবে একটি করে ওয়াশিং মেশিন।' তামিলনাড়ু নির্বাচনে অবশ্য এরকম উদাহরণ খুব একটা নতুন নয়। একটা সময় ভোটারদের টেলিভিশনও দেওয়া হয়েছিল রাজনৈতিক দলের তরফ থেকে।

    Published by:Suman Biswas
    First published: