Home /News /south-bengal /
Partha Arrest: পার্থর স্ত্রী'র শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে পাঠিয়েছিলেন ট্রাক ভর্তি চিংড়ি! ফের আলোচনায় ভগবানপুরের 'নান্টু প্রধান'! কেন উঠছে বার বার নাম?

Partha Arrest: পার্থর স্ত্রী'র শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে পাঠিয়েছিলেন ট্রাক ভর্তি চিংড়ি! ফের আলোচনায় ভগবানপুরের 'নান্টু প্রধান'! কেন উঠছে বার বার নাম?

নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ড

নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ড

Partha Arrest: পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের 'অতি ঘনিষ্ঠ' হিসেবে পরিচিত প্রয়াত তৃণমূল নেতা নান্টু প্রধান এক সময় সরকারি চাকরি দেওয়ার নাম করেই দেদার টাকা তুলেছিলেন বলে অভিযোগ।

  • Share this:

#পূর্ব মেদিনীপুর: পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার পর থেকেই ফুলেফেঁপে উঠেছিল সম্পদ। পার্থ গ্রেফতার কাণ্ডের পর থেকে ফের আলোচনায় উঠে এসেছে সেই নান্টুর নাম! জেলার তৃণমূল নেতাদের পাত্তা না দিয়ে সরাসরি পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গেই যোগাযোগ রেখে চলত এই নান্টু। তারপর যা ঘটেছিল তা পিলে চমকে দেবে নিঃসন্দেহে।

এককালে 'পার্থ ঘনিষ্ঠ' পরিচয় দিয়ে চাকরি দেওয়ার নামে টাকাও যেমন তুলতেন, কলকাতায় বখরাও পাঠাতেন। প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর স্ত্রী'র শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানের প্রীতিভোজের জন্য ট্রাক ভর্তি চিংড়ি সহ বিভিন্ন রকমের মাছও পাঠিয়েছিল এই নান্টুই!

আরও পড়ুন : রাজ্যজুড়ে গ্রামে গ্রামে ৮২৪ টি সুস্বাস্থ্য কেন্দ্র! পঞ্চায়েত ভোটের আগে গ্রামীণ স্বাস্থ্যে নজর

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পর থেকে টাকা ফেরতের জন্য ভগবানপুরের প্রয়াত তৃণমূল নেতা নান্টু প্রধানের বাড়িতে ভীড় বাড়ছে প্রতারিত চাকরি প্রার্থীদের। চাপে পড়ে প্রতারিতদের টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হচ্ছেন নান্টুর বাবা! এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য!

ভগবানপুরের এক সময়ের দাপুটে নেতা নান্টু প্রধানকে মনে আছে? মাছের ভেড়ির দখলদারি নিয়ে দাদাগিরির অভিযোগে উত্তেজিত জনতা তাড়া করে দীর্ঘ পথ ছুটিয়ে ছুটিয়ে প্রকাশ্যে মেরে নৃশংস ভাবে খুন করেছিল তাঁকে। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পর ভগবানপুরের মহম্মদপুরের সেই নান্টু প্রধানের নামই আবার সামনে আসছে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অতি ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত প্রয়াত তৃণমূল নেতা নান্টু প্রধান এক সময় সরকারি চাকরি দেওয়ার নাম করেই দেদার টাকা তুলেছিলেন বলে অভিযোগ। অভিযোগ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ পরিচয় দিয়ে এক সময় প্রচুর টাকা তুলেছিলেন এই নান্টু। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হিসেবেই এলাকায় তাঁর পরিচিতি ছিল। সেই পরিচয়েই এই টাকা তোলা বলে স্থানীয় মানুষদের দাবি।

আরও পড়ুন : ইলশেগুঁড়ি বৃষ্টি, পুবালি হাওয়া! টন টন ইলিশ ঢুকছে কলকাতার বাজারে! দর কেমন? দেখে নিন

প্রথমে নান্টুর মৃত্যু, পরে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারি একের পর এক ঘটনার পরেই দলে দলে প্রতারিত চাকরি প্রার্থীরা আসছেন ভগবানপুরের মহম্মদপুরে নান্টুর বাড়িতে। আসছেন চাকরির জন্য দেওয়া টাকা ফেরত নিতেই। নান্টুর অসুস্থ বাবা এবং নান্টুর বিধবা স্ত্রী পার্থ ঘনিষ্ঠতার কথা স্বীকার করে বলেন, 'টাকা নেই। যা আছে ধাপে ধাপে যতটা পারি সবাইকে ফেরত দিচ্ছি।'

দাপুটে তৃণমূল নেতা নান্টু প্রধান খুন হয়েছিল ২০১৮ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি। স্থানীয় বাসিন্দা থেকে প্রতিবেশী সকলেই জানাচ্ছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের স্নেহধন্যই ছিলেন দাপুটে নান্টু। সেই পরিচয়কে সামনে রেখেই চাকরি দেওয়ার নাম করে দেদার টাকা তুলতো নান্টু। এখন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতার কাণ্ডের পর সেসব নিয়েই জোর চর্চা শুরু হয়েছে এলাকায়। টাকা ফের‍ত নিতে নান্টুর বাড়িতে লাইন পড়ছে প্রতারিতদের। তাদের টাকা ফেরত দিচ্ছেন নান্টুর বাবা।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Partha Cahtterjee

পরবর্তী খবর