Home /News /south-bengal /
Pallavi Dey Death Mystery: পল্লবীই প্রথম নন, একই পরিণতি হয়েছিল সাগ্নিকের প্রথম প্রেমিকারও! মাঝখানে সেই ঐন্দ্রিলা

Pallavi Dey Death Mystery: পল্লবীই প্রথম নন, একই পরিণতি হয়েছিল সাগ্নিকের প্রথম প্রেমিকারও! মাঝখানে সেই ঐন্দ্রিলা

২০১৪ সালে উদ্ধার হয় সৌমি মণ্ডলের (বাঁদিকে) ঝুলন্ত দেহ৷ (ডানদিকে) পল্লবীর সঙ্গে সাগ্নিক৷

২০১৪ সালে উদ্ধার হয় সৌমি মণ্ডলের (বাঁদিকে) ঝুলন্ত দেহ৷ (ডানদিকে) পল্লবীর সঙ্গে সাগ্নিক৷

সাঁতরাগাছির কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ে একসঙ্গে পড়াশোনার সুবাদে সাগ্নিকের সঙ্গে আলাপ সৌমির৷ সেই সূত্রেই ঘনিষ্ঠতা এবং প্রেম৷

  • Share this:

#হাওড়া: পল্লবীই প্রথম নন৷ একই পরিণতি হয়েছিল সাগ্নিক চক্রবর্তীর প্রথম প্রেমিকা সৌমি মণ্ডলেরও৷ ইতিমধ্যেই পল্লবীর লিভ ইন পার্টনার সাগ্নিকের বিরুদ্ধে একাধিক মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক রাখার অভিযোগ উঠেছে৷ হাওড়ার জগাছার বাসিন্দা সৌমিই সাগ্নিকের প্রথম প্রেমিকা ছিলেন বলে তাঁর পরিবারের৷

২০১৪ সালের ১৮ মার্চ হাওড়ার জগাছার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছিল একাদশ শ্রেণির ছাত্রী সৌমি মণ্ডলের ঝুলন্ত দেহ৷ পল্লবীর রহস্যমৃত্যুর ঘটনা সামনে আসতেই ফের একবার সাগ্নিকের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন সৌমির পরিবার৷ পল্লবীর মৃত্যুর পর তাঁর বান্ধবী ঐন্দ্রিলার সঙ্গে সাগ্নিকের সম্পর্কের অভিযোগ সামনে এসেছে৷ সৌমির মা ইলা মণ্ডলও তাঁর মেয়ের মৃত্যুর জন্য সাগ্নিক এবং ঐন্দ্রিলার সম্পর্ককেই দায়ী করেছেন৷ জগাছার সূর্যশ্রী নগরে থাকত সৌমি৷ সাগ্নিকও জগাছারই বাসিন্দা৷

আরও পড়ুন: অভিনেত্রী পল্লবী দে-র মৃত্যুকাণ্ডে গ্রেফতার প্রেমিক সাগ্নিক

সাঁতরাগাছির কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ে একসঙ্গে পড়াশোনার সুবাদে সাগ্নিকের সঙ্গে আলাপ সৌমির৷ সেই সূত্রেই ঘনিষ্ঠতা এবং প্রেম৷ সৌমির পরিবারের দাবি, মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হওয়ার পর নিয়মিত তাঁদের বাড়িতে আসত সাগ্নিক৷ ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাটাতো সে৷ সৌমি যেখানেই যেত, সঙ্গে থাকত সাগ্নিক৷

কিন্তু ধীরে ধীরে সাগ্নিক এবং সৌমির সম্পর্কে চিড় ধরে৷ শেষ পর্যন্ত ২০১৪ সালের ১৮ মার্চ একাদশ শ্রেণির ফাইনাল পরীক্ষা চলাকালীনই বাড়িতেই সৌমির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়৷ সৌমির মা ইলা মণ্ডলের চাঞ্চল্যকর অভিযোগ, ঐন্দ্রিলা মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে সম্পর্কের জেরেই সাগ্নিক এবং সৌমিকের সম্পর্কে চিড় ধরেছিল৷ ইলাদেবীর আরও অভিযোগ, তাঁর মেয়েকে খুন করা হয়েছে৷ কারণ সৌমি যখন আত্মহত্যা করেছিলেন, বাড়িতে কেউ ছিল না৷ সৌমির মৃত্যুর পর সাগ্নিক ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে তাঁদের বাড়িতেও গিয়েছিল বলে দাবি করেছেন সৌমির মা৷

আরও পড়ুন: আগেই 'বিবাহিত' প্রেমিক সাগ্নিক! আত্মহত্যা নাকি খুন? অভিনেত্রী পল্লবীর ময়নাতদন্তে যা ইঙ্গিত...

তাঁর কথায়, 'যেভাবে সাগ্নিক আমার মেয়ের সঙ্গে মিশেছে, আমার ঘরে ঢুকেছে, সে যে এত বড় ক্ষতি করতে পারে ভাবতে পারিনি৷ যখন আমার মেয়ে মারা যায়, সাগ্নিক ঐন্দ্রিলাকে নিেয়ই আমার বাড়িতে এসেছিল৷ '

ইলাদেবীর অভিযোগ, সেই সময় জগাছা থানায় একাধিকবার অভিযোগ জানাতে গিয়েছিলেন সৌমির বাবা অজয় মণ্ডল৷ কিন্তু প্রমাণ না থাকার অজুহাতে অভিযোগ নিতে চায়নি পুলিশ৷ পল্লবীর মৃত্যুর পর তাই নিজের মেয়ের অকাল মৃত্যুরও বিচার চাইছেন ইলাদেবী৷ তিনি বলেন, 'মনে হচ্ছে ছুটে গিয়ে পল্লবীর মায়ের পাশে দাঁড়াই৷' সৌমির বাবা অজয় মণ্ডলের কথায়, 'সেই সময় পুলিশ আমাকে সাহায্য করলে আজকে হয়তো পল্লবীর এই পরিণতি হত না৷'

পল্লবী দে-র রহস্যমৃত্যুর ঘটনায় গতকালই সাগ্নিক চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ যদিও সৌমির ঘটনা নিয়ে ঐন্দ্রিলা মুখোপাধ্যায়ের কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Pallavi dey

পরবর্তী খবর