• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • আগমনী দুর্গাপুজো...মহালয়ায় উমা আসেন, আবার ফিরেও যান! ধেনুয়ায় অভিনব পুজো দেখতে উপচে পড়ে ভিড়

আগমনী দুর্গাপুজো...মহালয়ায় উমা আসেন, আবার ফিরেও যান! ধেনুয়ায় অভিনব পুজো দেখতে উপচে পড়ে ভিড়

দামোদরের নদীর তীরে ধেনুয়া গ্রামে রয়েছে কালীকৃষ্ণ আশ্রম। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে শুরু হয়েছে দুর্গা পুজো। এই একদিনেই পুজো হয়ে যাবে সপ্তমী অষ্টমী ও নবমীর।

দামোদরের নদীর তীরে ধেনুয়া গ্রামে রয়েছে কালীকৃষ্ণ আশ্রম। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে শুরু হয়েছে দুর্গা পুজো। এই একদিনেই পুজো হয়ে যাবে সপ্তমী অষ্টমী ও নবমীর।

দামোদরের নদীর তীরে ধেনুয়া গ্রামে রয়েছে কালীকৃষ্ণ আশ্রম। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে শুরু হয়েছে দুর্গা পুজো। এই একদিনেই পুজো হয়ে যাবে সপ্তমী অষ্টমী ও নবমীর।

  • Share this:

    #বার্নপুর: মহালয়ায় মা দুর্গা এলেন আবার মহালয়াতেই ফিরে গেলেন। অভিনব একদিনের দুর্গা পুজো হল বার্নপুরে। হীরাপুরের ধেনুয়া গ্রামে আগমনী দুর্গা পুজো শুরু হয়ে যায় দেবীপক্ষে। দামোদরের নদীর তীরে ধেনুয়া গ্রামে রয়েছে কালীকৃষ্ণ আশ্রম। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে শুরু হয়েছে দুর্গা পুজো। এই একদিনেই পুজো হয়ে যাবে সপ্তমী অষ্টমী ও নবমীর।

    প্রতিবছর একদিনের এই অভিনব দুর্গাপুজো দেখতে বহু মানুষ দূরদূরান্ত থেকে আসেন ধেনুয়া গ্রামে। পুরোহিত আশিস ঠাকুর বলেন, বিভিন্ন খ্যান অনুযায়ী পুজোর লোকাচারগুলি হয়। চার রকমের ভোগ করতে হয় একদিনেই। দশমীর পুজো শেষে ঘট বিসর্জন হয়ে গেলেও মাতৃ প্রতিমা রেখে দেওয়া হয়।

    কিন্তু কেন এমন একদিনের পুজো ? কালীকৃষ্ণ আশ্রমের সেবাইত ছিলেন জ্যোতিন মহারাজ। তাঁর গুরুদেব তেজানন্দ ব্রহ্মচারী স্বপ্নাদেশ পেয়ে এই পুজো চালু করেছিলেন। পুরোহিত বলেন, সেবাইত জ্যোতিন মহারাজ মারা গিয়েছেন। দায়িত্ব সামলাচ্ছেন এখন কালিকৃষ্ণ ধীবর। জানা গিয়েছে, ১৯৩০ সাল থেকে পুজো হয়ে আসছে। দশভূজা দেবী এখানে সিংহবাহিনী হলেও অসুরদলনী নন। আগমনী দুর্গার সঙ্গে থাকেন দুই সখী জয়া ও বিজয়া। ধেনুয়া গ্রামের বাসিন্দারা একদিনের এই পুজোতে মেতে ওঠেন।  তবে বাতাসে পুজো পুজো গন্ধ আসতেই, পুজো শেষ হয়ে যাওয়ায় মন বিষন্ন হয়ে যায় সবার।

    Dipak Sharma

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: