• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • বর্ধমানে আপাতত ভাঙা হচ্ছে না পুরনো রেল সেতু, স্বস্তিতে স্থানীয় বাসিন্দারা

বর্ধমানে আপাতত ভাঙা হচ্ছে না পুরনো রেল সেতু, স্বস্তিতে স্থানীয় বাসিন্দারা

Photo-File

Photo-File

পুরনো রেল সেতু ভেঙে পড়ে যেকোনও সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় নতুন রেল সেতু তৈরি করা হয়েছিল।

  • Share this:

#বর্ধমান: আপাতত বর্ধমানে পুরনো রেল সেতু ভাঙার কাজ স্থগিত রাখল রেল। আজ থেকে ওই সেতু ভাঙা ও জবরদখলকারীদের উচ্ছেদের পরিকল্পনা নিয়েছিল তারা।সেই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে সেতুর গায়ে নোটিসও টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছিল রেল কর্তৃপক্ষ।

রেলের এই সিদ্ধান্তের পাল্টা বিকল্প পথের ব্যবস্থা ও হকারদের পুনর্বাসনের দাবি জানিয়ে আন্দোলন শুরু করেন এলাকার বাসিন্দারা। তাঁদের পাশে দাঁড়ায় তৃণমূল কংগ্রেস, বিজেপি ও এসইউসিআই। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকেও বিকল্প পথের ব্যবস্থা করার আবেদন জানানো হয়েছিল।এসবের পরিপ্রেক্ষিতেই আপাতত রেল সেতু ভাঙার প্রক্রিয়া স্থগিত রেখেছে রেল। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনার পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে রেল সূত্রে জানা গিয়েছে।

পুরনো রেল সেতু ভেঙে পড়ে যেকোনও সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় নতুন রেল সেতু তৈরি করা হয়েছিল। এক বছর আগেই সেই সেতু যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। এরপর পুরনো রেল সেতু ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে রেল। কিন্তু নতুন সেতু এতই দীর্ঘ ও উঁচু যে প্রতিদিন সেই সেতু দিয়ে হেঁটে বা সাইকেলে যাতায়াত সম্ভব নয়। ওই সেতু ব্যবহার করতে পারছে না টোটোও। ফলে পুরোনো রেল সেতুই এখনও স্থানীয় বাসিন্দাদের যাতায়াতের মূল ভরসা হিসেবে রয়ে গিয়েছে।

এখন সেই সেতু ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত হতেই যাতায়াতে সমস্যার বিষয়টি আঁচ করে আন্দোলনে নামেন বাসিন্দারা। তাঁদের পাশে দাঁড়ায় রাজনৈতিক দলগুলিও। সকলেরই দাবি, পুরনো সেতুর অ্যাপ্রোচ রোডে থাকা হকারদের পুনর্বাসন ও বিকল্প পথের ব্যবস্থা করে তবেই সেতু ভাঙার কাজে হাত দিক রেল।

এ বিষয়ে রেলের এক আধিকারিক জানান, পুরনো সেতু রেল লাইনের উপর ভেঙে পড়ে বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে।তাই এই সেতু ভাঙতেই হবে। তবে এ বিষয়ে রাজ্য সরকার বা জেলা প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Saradindu Ghosh

Published by:Debamoy Ghosh
First published: