দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনায় মৃত ১২৪ , ৮ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা

পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনায় মৃত ১২৪ , ৮ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, আট মাস ধরে জেলায় অতিমারি করোনার সংক্রমণ চললেও গত এক মাসে মৃত্যু হয়েছে সবচেয়ে বেশি।

  • Share this:

#বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আট হাজার ছাড়িয়ে গেল। আক্রান্তের সংখ্যায় লাগাম টানা না যাওয়ায় উদ্বিগ্ন জেলা প্রশাসন। আক্রান্তের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। তাতে উদ্বেগ আরও বাড়ছে। এই জেলায় এদিন পর্যন্ত একশো চব্বিশ জনের মৃত্যু হয়েছে। জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, আট মাস ধরে জেলায় অতিমারি করোনার সংক্রমণ চললেও গত এক মাসে মৃত্যু হয়েছে সবচেয়ে বেশি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন,করোনাকে হালকাভাবে না নিয়ে বাসিন্দাদের এখনও সতর্ক থাকতে হবে। সেইসঙ্গে যাবতীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা জরুরি। আক্রান্তদের বেশিরভাগই সুস্থ হয়ে উঠছেন। তাই অনেকের মধ্যেই আগের সেই সচেতনতা এখন আর দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু শরীরে অন্যান্য রোগ থাকলে আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যুর আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যাচ্ছে। দু তিন ঘন্টার ব্যবধানে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন অনেকেই। তাই করোনাকে হালকাভাবে না নিয়ে সংক্রমণ এড়িয়ে চলার জন্য যাবতীয় সাবধানতা গ্রহণ করা জরুরি। ঘরের বাইরে পা দিলেই ফেস কভার বা মাস্কে মুখ ঢাকতে হবে। মাস্ক একাধিকবার ব্যবহার করতে হলে নিয়ম মেনে তা পরিষ্কার করে ভালোভাবে শুকিয়ে নিতে হবে। সেই সঙ্গে বারবার স্যানিটাইজারে হাত পরিষ্কার রাখতে হবে। ভিড় এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। বাজারে, গন পরিবহণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা প্রয়োজন।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় এদিন পর্যন্ত আট হাজার তিনশো তিরিশ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে সাত হাজার পাঁচশো আশি জন ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। বর্তমানে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা 626 জন। তাদের বর্ধমানের করোনা হাসপাতাল, কৃষি খামার, হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা চালানো হচ্ছে। এদিন পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় একশো চব্বিশ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। এই জেলায় গত চব্বিশ ঘন্টায় নতুন করে 135 জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে 131 জনেরই কোনও ট্রাভেল হিস্ট্রি নেই। তাঁরা এই জেলাতেই আছেন। সেখানেই তাঁরা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।গোষ্ঠী সংক্রমণের কারণেই এমনটি ঘটছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আক্রান্তদের মধ্যে 117 জনই উপসর্গহীন। তাদের মধ্যে 116 জন বাড়িতেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। চোদ্দ জনের দেহে করোনার উপসর্গ মিলেছে। তাদের বর্ধমানের বর্ধমান শহর লাগোয়া বামচাঁদাইপুরের ক্যামরি হাসপাতাল, কৃষি ভবনের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: November 9, 2020, 10:12 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर