• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • নোটার ভোটেই কি কপাল পুড়ল জোটের?

নোটার ভোটেই কি কপাল পুড়ল জোটের?

বিধানসভা নির্বাচনে এবার রেকর্ড সংখ্যক ভোট পড়েছে নোটায়। ২৩ কেন্দ্রে জয়ের ব্যবধানের চেয়ে নোটার ভোট বেশি। অনেক কেন্দ্রে নোটার সংখ্যা জয়ের ব্যবধানের অর্ধেকেরও বেশি ৷ ফলে সেই ভোট কোনও রাজনৈতিক দলের পক্ষে গেলে ফলের হেরফের হত এটা নিশ্চিত। আবার নোটার ভোট দেখে জোটের মধ্যেও দেখা দিয়েছে সংশয়। জোটকে না মানতে পারায় অনেক জায়গাতেই কংগ্রেসের ভোট গেছে নোটায় বলে আশঙ্কা রাজনীতিকদের।

বিধানসভা নির্বাচনে এবার রেকর্ড সংখ্যক ভোট পড়েছে নোটায়। ২৩ কেন্দ্রে জয়ের ব্যবধানের চেয়ে নোটার ভোট বেশি। অনেক কেন্দ্রে নোটার সংখ্যা জয়ের ব্যবধানের অর্ধেকেরও বেশি ৷ ফলে সেই ভোট কোনও রাজনৈতিক দলের পক্ষে গেলে ফলের হেরফের হত এটা নিশ্চিত। আবার নোটার ভোট দেখে জোটের মধ্যেও দেখা দিয়েছে সংশয়। জোটকে না মানতে পারায় অনেক জায়গাতেই কংগ্রেসের ভোট গেছে নোটায় বলে আশঙ্কা রাজনীতিকদের।

বিধানসভা নির্বাচনে এবার রেকর্ড সংখ্যক ভোট পড়েছে নোটায়। ২৩ কেন্দ্রে জয়ের ব্যবধানের চেয়ে নোটার ভোট বেশি। অনেক কেন্দ্রে নোটার সংখ্যা জয়ের ব্যবধানের অর্ধেকেরও বেশি ৷ ফলে সেই ভোট কোনও রাজনৈতিক দলের পক্ষে গেলে ফলের হেরফের হত এটা নিশ্চিত। আবার নোটার ভোট দেখে জোটের মধ্যেও দেখা দিয়েছে সংশয়। জোটকে না মানতে পারায় অনেক জায়গাতেই কংগ্রেসের ভোট গেছে নোটায় বলে আশঙ্কা রাজনীতিকদের।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: বিধানসভা নির্বাচনে এবার রেকর্ড সংখ্যক ভোট পড়েছে নোটায়। ২৩ কেন্দ্রে জয়ের ব্যবধানের চেয়ে নোটার ভোট বেশি। অনেক কেন্দ্রে নোটার সংখ্যা জয়ের ব্যবধানের অর্ধেকেরও বেশি ৷ ফলে সেই ভোট কোনও রাজনৈতিক দলের পক্ষে গেলে ফলের হেরফের হত এটা নিশ্চিত। আবার নোটার ভোট দেখে জোটের মধ্যেও দেখা দিয়েছে সংশয়। জোটকে না মানতে পারায় অনেক জায়গাতেই কংগ্রেসের ভোট গেছে নোটায় বলে আশঙ্কা রাজনীতিকদের।

    বাম-কংগ্রেস জোট হচ্ছে মানুষের জোট। ভোটের আগে থেকে এমনই দাবি করে আসছিলেন সূর্য-অধীররা। কিন্তু ভোটের ফল বিশ্লেষণে কিন্তু অন্য ইঙ্গিত মিলছে। এই বিধানসভা ভোটে কোনও প্রার্থীই পছন্দ নয় বা নোটা-তে ভোট পড়েছে রেকর্ড সংখ্যক। নোটায় মোট ভোট পড়েছে ৮ লক্ষ ৩১ হাজার ৮৪৫ ৷ যা মোট ভোটের ১.৫ শতাংশ ৷

    বীরভূম জেলাতেই নোটার পরিমাণ প্রায় সাড়ে ছত্রিশ হাজারের কাছাকাছি। বীরভূমের মোট ১১টি কেন্দ্রে মোট নোটার পরিমাণ ৩৬ হাজার ৪৯৪ ৷

    সিউড়ি---৪১৮৮ নলহাটি----১৫৬৩ বোলপুর----৪৭১২ মুরারই---- ১৬৮৯ লাভপুর----৩৫৩৬ সাঁইথিয়া----২৫৯৯ ময়ুরেশ্বর------৩১৫৫ দুবরাজপুর----২৬৫৮ হাসন-------২৪০০ রামপুরহাট------৪৬৫২ নানুর-------৪৩৪২

    বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে, যেসব কেন্দ্রে কংগ্রেসের পার্থী ছিলেন, সেখানে তুলনামূলকভাবে নোটায় কম ভোট পড়েছে। অন্যদিকে, যেসব কেন্দ্রে বামপ্রার্থীরা লড়াই করেছেন সেখানে নোটার পরিমাণ অনেক বেশি। যেমন, বীরভূমের বোলপুর কেন্দ্রটির কথাই ধরা যাক। জেলায় এই কেন্দ্রেই সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে নোটায়। ৪ হাজার ৭১২ টি।

    বোলপুরে তৃণমূলের চন্দ্রনাথ সিনহার বিরুদ্ধে জোটের প্রার্থী ছিলেন আরএসপির তপন হোড়। তাহলে যেখানে কংগ্রেসের প্রার্থী নেই, সেখানে কি কংগ্রেসের ভোট বামেদের পক্ষে না গিয়ে নোটায় পড়েছে? অভিযোগ এক প্রকার মেনেই নিয়েছেন প্রাক্তন সিপিএম সাংসদ রামচন্দ্র ডোম। বামপ্রার্থী পছন্দ না হওয়া একটা কারণ হতে পারে বলে মত জেলার কংগ্রেস নেতাদের।

    দু'পক্ষের রাজ্যস্তরের নেতারা যতই মানুষের জোটের কথা বলুন না কেন? রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন, নিচু তলায় যে একপক্ষ আরেক পক্ষকে ঠিক মেনে নিতে পারছে না, তার প্রতিফলনই পড়েছে ভোটে।

    First published: