করোনার উপসর্গ নিয়ে রামপুরহাটে ভর্তি যুবকের দেহ পাওয়া গেল না করোনার ভাইরাস

করোনার উপসর্গ নিয়ে রামপুরহাটে ভর্তি যুবকের দেহ পাওয়া গেল না করোনার ভাইরাস

স্বাস্থ্য দফতর থেকে জানানো হয়েছে আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই এবং গুজবে কান দেবেন না।

  • Share this:

Supratim Das

#রামপুরহাট: বীরভূমের রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজে করোনার উপসর্গ নিয়ে ভর্তি থাকা যুবকের দেহে নেই করোনা ভাইরাস এর জীবাণু। রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট এসে পৌঁছাল বীরভূমের রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজে। গত পরশু করোনার উপসর্গ নিয়ে সিউড়িতে ডাক্তার দেখাতে আসা যুবককে কোয়ারান্টাইনে রাখা হয়েছিল ময়ূরেশ্বরে নিজের বাড়িতে। পরে বীরভূম জেলা স্বাস্থ্য দফতরের টিম পুলিশ গিয়ে ওই যুবককে মুখে মাস্ক পরিয়ে রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে আসে ভর্তির জন্য। ওই যুবক রাজি না থাকলেও তাঁকে অনুরোধ করে রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁর রক্তের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল,  সেই রিপোর্ট এসে পৌছালো আজ।

জ্বর, সর্দি, কাশি নিয়ে কয়েকদিন আগে বীরভূমের সিউড়িতে এক ডাক্তারের চেম্বারে দেখাতে আসে এক যুবক। বীরভূমের রামপুরহাট মহকুমার ময়ূরেশ্বরের কলেশ্বর গ্রামের বাসিন্দা। সে সৌদি আরবে কাজ করে গত ১০ দিন আগে বাড়ি ফেরে। ডাক্তারের সন্দেহ হওয়ায় তাঁকে মাস্ক পড়ানো হয় চেম্বারেই। যেহেতু সৌদি আবর থেকে ফিরেছিল ওই যুবক, ফলে তাঁর সব তথ্য জানানো হয়েছিল বীরভূম জেলা স্বাস্থ্য দফতরে। তাঁর জ্বর, সর্দি, কাশি ছিল তবে বুকে কোনও ইনফেকশান ছিল না ৷ সেই কারণে তাঁকে বাড়িতেই  রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। যদিও স্বাস্থ্য দফতর থেকে জানানো হয়েছে আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই এবং গুজবে কান দেবেন না। কারণ ওই যুবকের শরীরে পাওয়া যায়নি করোনার ভাইরাস।

First published: March 15, 2020, 11:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर