মহিলা ভোট কর্মী নিয়োগে বাধ্যবাধকতা নেই, স্বস্তিতে পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন

মহিলা ভোট কর্মী নিয়োগে বাধ্যবাধকতা নেই, স্বস্তিতে পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন

সব মিলিয়ে ১৫ শতাংশ মহিলা পরিচালিত বুথ থাকতে পারে। সেসব বুথ মূলত শহর এলাকায় করা হবে

সব মিলিয়ে ১৫ শতাংশ মহিলা পরিচালিত বুথ থাকতে পারে। সেসব বুথ মূলত শহর এলাকায় করা হবে

  • Share this:

#বর্ধমান: ৫০ শতাংশ মহিলা পরিচালিত বুথ বাধ্যতামূলক নয় বলে নির্বাচন কমিশন জানিয়ে দেওয়ায় অনেকটাই স্বস্তিতে পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। এর আগে জেলার মোট বুথের ২৫ শতাংশ মহিলা পরিচালিত বুথ রাখতে হবে বলে নির্দেশ জারি করেছিল নির্বাচন কমিশন। সেই নির্দেশ মেনে মহিলা ভোট কর্মী জোগাড় করতে এরকম হিমশিম খেতে হচ্ছিল জেলা নির্বাচন দপ্তরকে। কারণ মহিলাদের অনেকেই ভোটের ডিউটি করতে অনাগ্রহ প্রকাশ করছিলেন। ২৫ শতাংশ মহিলা পরিচালিত বুথ বাধ্যতামূলক নয় - নির্বাচন কমিশন এমনটা জানিয়ে দেওয়ায় এখন বুথে কর্মী পাঠাতে অনেকটাই সুবিধা হবে বলেই মনে করছে জেলা নির্বাচন দপ্তরের আধিকারিকরা।

আগের নির্দেশ অনুযায়ী পূর্ব বর্ধমান জেলায় ১৪১০টি মহিলা পরিচালিত বুথ করার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছিল। সেজন্য প্রায় ৬ হাজার মহিলা ভোট কর্মী প্রয়োজন দেখা দিয়েছিল। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই স্কুল শিক্ষিকাদের ভোট কর্মী হিসেবে কাজে লাগানোর পরিকল্পনা নিয়েছিল জেলা নির্বাচন দপ্তর। কিন্তু এই কাজ করতে বেশিরভাগ মহিলা অনাগ্রহ প্রকাশ করছিলেন। তাদের মধ্যে অনেকেই শারীরিক অসুস্থতা, সন্তানের দেখভাল সহ নানা কারণ দেখিয়ে ভোটের কাজ থেকে অব্যাহতি চেয়ে জেলা নির্বাচন আধিকারিকের কাছে লিখিত আবেদন জানিয়েছিলেন। ২৫ শতাংশ বুথ মহিলা পরিচালিত থাকায় সেই সব আবেদন মঞ্জুর করার ক্ষেত্রে ঢিমেতালে এগোচ্ছিল প্রশাসন। নতুন নির্দেশে সেইসব আবেদন মঞ্জুর করা অনেকটাই সহজ হবে বলেই মনে করছে নির্বাচন দপ্তর।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় নির্বাচন পরিচালনার কাজে যুক্ত এক আধিকারিক জানান, অনেক জেলায ২৫ শতাংশ মহিলা বুথ করা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছিল। তাছাড়া মহিলারা বুথে বা বাইরে নিরাপত্তার কারণে রাত কাটাতে অনিচ্ছুক বলে জানিয়েছিলেন। সেসব তথ্য রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কাছে পাঠানো হয়। এই সব সমস্যার কথা রাজ্য নির্বাচন কমিশন কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছিল। এরপরই ২৫ শতাংশ মহিলা পরিচালিত বুথ বাধ্যতামূলক নয় বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্ব বর্ধমান জেলায় ১৪১০টি মহিলা পরিচালিত বুথ করার লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও এগারোশোর বেশি বুথ করা যাচ্ছিল না। নতুন নির্দেশে লক্ষ্যমাত্রা সাড়ে সাতশোয় নামিয়ে আনা হয়েছে। এর ফলে মহিলা ভোট কর্মী সংখ্যা অনেক কমিয়ে আনা যাবে। সব মিলিয়ে ১৫ শতাংশ মহিলা পরিচালিত বুথ থাকতে পারে। সেসব বুথ মূলত শহর এলাকায় করা হবে। মহিলা ভোট কর্মীরা যাতে নিজের বিধানসভা এলাকায় বাড়ির কাছে দায়িত্ব পান তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে মহিলাদের হোটেল বা সবরকম পরিকাঠামো রয়েছে এমন অনুষ্ঠান বাড়িতে রাখার কথা ভাবা হচ্ছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে এই বুথগুলি যাতে করা হয় সেই বিষয়টি মাথায় রাখা হচ্ছে।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

লেটেস্ট খবর