পুজোর সময়ে ঘরবন্দি জীবন, গ্রামে দুর্গাপুজো না হওয়ায় আক্ষেপ রংহীন ভাঙড়ের আদিবাসীপাড়ার

আনমনে জীবন বোনে ভাঙড়ের কুলবেড়িয় গ্রামের আদিবাসী মহল্লা। সাদা-কালোয় আঁকা জীবনের রং বদলায় না। বদলায় ঋতু।

আনমনে জীবন বোনে ভাঙড়ের কুলবেড়িয় গ্রামের আদিবাসী মহল্লা। সাদা-কালোয় আঁকা জীবনের রং বদলায় না। বদলায় ঋতু।

  • Share this:

    #ভাঙড়: পুজো বলে , আর কয়েকটাদিন মাত্র। নীলচে আকাশের মেঘমল্লারে আগমনীর সুর। উৎসবে মাততে যখন কোমর বাঁধছে গোটা বাংলা...তখন মন খারাপ দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ভাঙড়ের আদিবাসীপাড়ার। আজও উমার পা পড়েনি এ মহল্লায়।

    আনমনে জীবন বোনে ভাঙড়ের কুলবেড়িয় গ্রামের আদিবাসী মহল্লা। সাদা-কালোয় আঁকা জীবনের রং বদলায় না। বদলায় ঋতু। গ্রামের পথে হেলায় কাটে শৈশব। দূরে কোথাও আপন মনে মাথা দোলায় আকুন্দ ফুল। কিন্তু শিউলির গন্ধে পুজো আসেনা আদিবাসীপাড়ায়।

    আসলে নিম্নবিত্ত পাড়ার দুর্গাপুজো করার ক্ষমতা নেই। পুজোর সময়ে দূরের কোনও গাঁয়ে যখন ঢাকের বোলে উমার বোধন হয়, তখন বন্ধ ঘরে উৎসব ভোলে আদিবাসী মহল্লা।

    জীবন চলে সরলরেখায়। এ পাড়ার ইচ্ছেদের উড়তে মানা। ভারাক্রান্ত মনে আদিবাসী মহল্লার আক্ষেপ, ইস...যদি একটা পুজো হত এ পাড়ায় !

    পুজোর কদিন ঘরবন্দি সময়। কমবয়সীরা তবু দল বেঁধে কলকাতায় ঠাকুর দেখতে যায়। অনটনের সংসারে নিজেদের করম পুজোও করা হয়ে ওঠেনা।

    পুজোর আমেজ রং ছড়াতে শুরু করেছে। কিন্তু এবারও রংহীন ভাঙড়ের আদিবাসীপাড়ার পুজো।

    First published: