West Bengal Assembly Election 2021: কংগ্রেস তৃণমূল ছেড়ে এবার কি তবে নির্দল'ই ভরসা?

West Bengal Assembly Election 2021: কংগ্রেস তৃণমূল ছেড়ে এবার কি তবে নির্দল'ই ভরসা?

Photo-News 18 Bangla

২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে সুতির বিধানসভায় বড় চাঞ্চল্য৷

  • Share this:

#মুর্শিদাবাদ: কংগ্রেস, তৃণমূল থেকে দলত্যাগ করে শেষে যৌথভাবে নির্দল প্রার্থী ঘোষণা করলেন মুর্শিদাবাদের সুতির প্রাক্তন কংগ্রেস ব্লক সভাপতি আলফাজুদ্দিন বিশ্বাস ও জেলা খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ মইদুল ইসলাম।গত ৯ই মার্চ সুতির মহেন্দ্রপুরে এক কর্মীসভা শেষে সাংবাদিকদের তৃণমূল কংগ্রেস থেকে দলত্যাগের কথা ঘোষণা করেন মুর্শিদাবাদ জেলা খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ মইদুল ইসলাম।

২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে সুতির বিধানসভা কেন্দ্রে  প্রার্থী নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রার্থী বদল করার দাবি জানান তিনি। তবে সেটা না হওয়ায় তিনি এবার নির্বাচনে নির্দলকে বেছে নিলেন। অপরদিকে কংগ্রেসের প্রাক্তন ব্লক সভাপতি আলফাজুউদ্দিন বিশ্বাস এর ক্ষেত্রেও ঘটনাটা ঠিক একই রকম।কংগ্রেসের ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচন সুতি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা হয় বর্তমান বিধায়ক হুমায়ুন রেজার নাম। তবে হুমায়ুন রেজাকে প্রার্থী হিসেবে মানতে নারাজ ব্লক কংগ্রেসের একাধিক অংশ। তারা গত ১৫ মার্চ সুতির অরঙ্গবাদে এরই প্রতিবাদে একটি বিক্ষোভ মিছিল করেন। অবশেষে মঙ্গলবার ২৩শে মার্চ কংগ্রেসের ব্লক সভাপতির পদত্যাগের কথা ঘোষণা করেন তিনি। এদিনই মুর্শিদাবাদ জেলা বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে সুতির অরঙ্গবাদ বোরবোনাহাটে মহামিছিল ও সভা অনুষ্ঠিত হলো মইদুল ইসলাম ও আল্ফাজুদ্দিন বিশ্বাসের যৌথ উদ্যোগে।

এই মিছিল ও সভায় উপস্থিত ছিলেন মুর্শিদাবাদ জেলা বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মইদুল ইসলাম, সভাপতি আলফাজ উদ্দিন বিশ্বাস, ওবায়দুর রহমান সহ বেশ কয়েক হাজার বিড়ি শ্রমিক ও সাধারণ মানুষ। সভা শেষে দলীয়ভাবে সুতি বিধানসভা কেন্দ্রে নির্দল প্রার্থী হিসেবে মইদুল ইসলামের নাম ঘোষণা করেন প্রাক্তন কংগ্রেস ব্লক সভাপতি তথা মুর্শিদাবাদ জেলা বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আল্ফাজুদ্দিন বিশ্বাস।বিড়ি শ্রমিকদের হয়ে লড়াইয়ের লক্ষ্যে শ্রমিক ইউনিয়নের একজনকেই এই বিধানসভা কেন্দ্রের নির্দল প্রার্থী হিসেবে হিসেবে ঘােষনা করা হয়েছে বলে জানালেন আলফাজুদ্দিন বিশ্বাস। আর এই কেন্দ্রে মইদুল ইসলাম জয় লাভ করবে বলেই নিশ্চিত তিনি।

Pranab Kumar Banerjee

Published by:Debalina Datta
First published:

লেটেস্ট খবর