• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • কেষ্ট'র নিদান 'খেলা হবে'তে মিশল ডিজে মিউজিক! অনুব্রতের সামনেই উদ্দাম নাচ তৃণমূল সমর্থকদের

কেষ্ট'র নিদান 'খেলা হবে'তে মিশল ডিজে মিউজিক! অনুব্রতের সামনেই উদ্দাম নাচ তৃণমূল সমর্থকদের

অনুব্রত মণ্ডল (ফাইল ছবি)।

অনুব্রত মণ্ডল (ফাইল ছবি)।

বৃহস্পতিবার বীরভূমের সিউড়ির বেণীমাধব স্কুল মাঠে ছিল তৃণমূল কংগ্রেসের জনসভা। সেখানে প্রধান বক্তা ছিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

  • Share this:

#সিউড়ি: অনুব্রত-র নয়া নিদান 'খেলা হবে'। আর তার সঙ্গে সঙ্গেই তৈরী হয়ে গেল 'খেলা হবে' গান সঙ্গে ডিজে মিশিয়ে গান মিউজিক। মঞ্চে বসে তৃণমূল সমর্থকদের উদ্দাম নাচ দেখালেন স্বয়ং অনুব্রত মন্ডল।

বৃহস্পতিবার বীরভূমের সিউড়ির বেণীমাধব স্কুল মাঠে ছিল তৃণমূল কংগ্রেসের জনসভা। সেখানে প্রধান বক্তা ছিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তার বক্তব্য শোনার জন্য হাজার হাজার তৃণমূল সমর্থক উপস্থিত হয়েছিলেন বেনীমাধব স্কুলের মাঠে। সবাই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন কখন অনুব্রত মণ্ডল বক্তব্য রাখবেন। বক্তব্য রাখতে গিয়ে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, "খেলা হবে,  এই বীরভূমের মাটিতেই খেলা হবে, ভয়ঙ্কর খেলা হবে।" তারপরেই হাততালিতে ফেটে পড়ে চারিদক।

উল্লেখ্য, খেলা হবে ভাষণের পর অনুব্রত নতুন নিদানও বাদ যায়নি। উপস্থিত তৃনমুল কর্মী-সমর্থকদের কাছ থেকে অনুব্রত মণ্ডল জানতে চান বিজেপিকে পগার পার করতে পারবেন কিনা? প্রত্যেক বারই ভোটের সময় অনুব্রত মণ্ডলের এক এক রকম বক্তব্য আগেও শুনেছে রাজ্যের মানুষ। কখনও তিনি গুড়-বাতাসার কথা বলেছে, আবার কখনও বলেছেন জয়ঢাক বা উন্নয়ন দাঁড়িয়ে থাকবে রাস্তায়। আর এবারের বিধানসভা ভোটের আগে অনুব্রতের নতুন নিদান 'পগার পার' আর 'খেলা হবে'।

অনুব্রতর এই মজা রাজ্য রাজনীতিতে ছড়িয়ে পড়ে ভোটের বার্তা হিসাবে। কখনও  কখনও তাঁর এসব কথা স্থান করে নেয় দেওয়াল লিখনেও। আর এবার প্রথম থেকেই চলে আসছে খেলা হবে,  সেই খেলা হবে শব্দকে নিয়েই ইতিমধ্যেই তৈরি হয়েছে গান। যে গান ডিজে মিউজিকের সঙ্গে মিশিয়ে ইতিমধ্যেই বাজতে শুরু করে দিয়েছে বিভিন্ন জায়গায়। বাদ যায়নি আজকের অনুব্রতর সভামঞ্চ। সভা শেষে অনুব্রত সামনেই 'খেলা হবে' ডিজে মিউজিকের তালে নাচ শুরু করেন তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। দুঁদে এই নেতার নয়া নিদান প্রসঙ্গে পরে সাংবাদিক সম্মেলনে অনুব্রত বলেন, "খেলা হবে,  হাডুডু-ডাংগুলি-সহ আরও অনেক খেলা হবে। দিন রাত খেলা হবে,  রাতে লাইট জ্বালিয়ে খেলা হবে। খেলায় আহতরা হাসপাতালে যাবে।"

Supratim Das

Published by:Shubhagata Dey
First published: