Narendra Modi on Coochbehar Firing: ছাপ্পা ভোট বন্ধ, তাই বাহিনীকে নিয়ে সমস্যা, মাথাভাঙা কাণ্ডে মমতাকে দুষলেন মোদি

মাথাভাঙার ঘটনায় মমতাকেই দায়ী করলেন মোদি৷

কোচবিহরের শীতলকূচি বিধানসভার অন্তর্গত জোড়াপাটকি গ্রামে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে চার জনের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে৷

  • Share this:

    #কৃষ্ণনগর: ছাপ্পা ভোট আটকে গিয়েছে৷ সেই কারণেই কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিশানা করা হচ্ছে৷ হিংসার রাজনীতি করে ভোটে জিততে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কৃষ্ণনগরের সভা থেকে ফের একবার মাথাভাঙার ঘটনার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর দিকেই আঙুল তুললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ তাঁর প্রশ্ন, কেন্দ্রীয় বাহিনী অন্য রাজেও শান্তিতে ভোট করিয়ে এসেছে৷ তাহলে বাংলায় এত সমস্যা কেন?

    কোচবিহরের শীতলকূচি বিধানসভার অন্তর্গত জোড়াপাটকি গ্রামে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে চার জনের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে৷ ভোটের সময় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিআইএসএফ জওয়ানরাই গুলি চালান বলে অভিযোগ৷ যদিও সিআইএসএফ-এর দাবি, দুষ্কৃতীরা ভোটকেন্দ্রের দখল নিতে গিয়ে বাহিনীকে আক্রমণ করার পরই বাধ্য হয়ে গুলি চালিয়েছেন তাঁরা৷ প্রধানমন্ত্রী অবশ্য কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশেই দাঁড়িয়েছেন৷

    এ দিন কৃষ্ণনগরের বিজেপি প্রার্থী মুকুল রায়ের সমর্থনে কৃষ্ণনগরে সভা করেন প্রধানমন্ত্রী৷ সভা থেকে নরেন্দ্র মোদি বলেন, 'দিদি নিজের পুরনো খেলা শুরু করেছেন৷ বাংলায় দিদি এবং তৃণমূল মিলে হিংসা ছড়ানোর চেষ্টা হচ্ছে৷ গণতন্ত্রের উৎসবেও আপনি মা- বোনেদের চোখের জল ফেলার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছেন৷ আপনার দুর্নীতির কারণে আজ বাংলার এই অবস্থা৷ কেন্দ্রীয় বাহিনী গোটা দেশে নিরপেক্ষ ভাবে ভোট করায়৷ কয়েকদিন আগেই আরও চার রাজ্যের নির্বাচন শেষ হয়েছে৷ সমস্যা কেন্দ্রীয় বাহিনীর নয়৷ সমস্যা আপনার হিংসাত্মক রাজনীতির, সমস্যা ছাপ্পা ভোটের৷ এই ছাপ্পা ভোট আটকে যাওয়াতেই আপনার অসহায়তা সামনে এসেছে৷ সমস্যা আপনার প্ররোচনামূলক বক্তৃতায়৷ কিন্তু দিদি মনে রাখবেন, এটা ২০২১-এর বাংলা৷ এবার আপনাকে গণতন্ত্রের সঙ্গে খেলা করতে দেওয়া হবে না৷ আপনি বাংলার মানুষকে ভয় দেখানোর যত চেষ্টা করছেন, তত বেশি মানুষ আপনাকে হারানোর জন্য একজোট হচ্ছে৷' এর আগে শিলিগুড়ির সভা থেকেও মাথাভাঙার ঘটনার জন্য তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের দায়ী করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকেই আঙুল তুলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী৷

    তৃণমূলের হার নিশ্চিত বলে দাবি করে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, 'এই নির্বাচন বিজেপি লড়ছে না, বাংলার মানুষ লড়ছে৷ বিজেপি-র থেকেও বাংলার মানুষ এগিয়ে এসে আপনাকে হারাতে চাইছে দিদি৷ আপনি বিজেপি-কে হারানোর চেষ্টা করতে পারেন, কিন্তু বাংলার মানুষকে কীভাবে হারাবেন?' আত্মবিশ্বাসী নরেন্দ্র মোদি এ দিনও দাবি করেছেন, বাংলায় বিজেপি সরকারের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে তিনি আসছেন৷ শুধু তাই নয়, এর আগে তৃণমূলের তরফে আপত্তি জানানো হলেও এ দিন ফের একবার আয়ুষ্মান ভারতের মতো কেন্দ্রীয় প্রকল্প কার্যকর করার জন্য রাজ্য সরকারের আধিকারিকদের প্রস্তুতি নিতেও নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী৷

    প্রধানমন্ত্রী এই দাবি করলেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ তৃণমূল নেতৃত্ব পাল্টা মাথাভাঙার ঘটনায় নরেন্দ্র মোদি এবং অমিত শাহের দিকেই আঙুল তুলেছেন৷ তাঁদের অভিযোগ, নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশে কাজ করছে৷ মাথাভাঙায় গুলি চলার ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ আগামিকাল, রবিবার তিনি শীতলকূচির ওই গ্রামে যাবেন৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: