• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • রেশন কার্ডের তালিকায় নাম না থাকায় সহকর্মীর হাতে খুন সিভিক ভলান্টিয়ার

রেশন কার্ডের তালিকায় নাম না থাকায় সহকর্মীর হাতে খুন সিভিক ভলান্টিয়ার

হাওড়ার উদয়নারায়ণপুরে সহকর্মীর হাতে খুন হলেন একজন সিভিক ভলান্টিয়ার ৷ ঘটনাটি ঘটেছে উদয়নারায়ণপুরের পেঁড়ো এলাকায় ৷ নিহত সিভিক ভলান্টিয়ারের নাম জয়ন্ত সাঁতরা ৷ ডিজিটাল রেশন কার্ডে আত্মীয়ের নাম না থাকায় শুরু হয় বচসা, সেখান থেকেই খুন ৷ অভিযুক্ত সিভিক ভলান্টিয়ার পলাতক ৷

হাওড়ার উদয়নারায়ণপুরে সহকর্মীর হাতে খুন হলেন একজন সিভিক ভলান্টিয়ার ৷ ঘটনাটি ঘটেছে উদয়নারায়ণপুরের পেঁড়ো এলাকায় ৷ নিহত সিভিক ভলান্টিয়ারের নাম জয়ন্ত সাঁতরা ৷ ডিজিটাল রেশন কার্ডে আত্মীয়ের নাম না থাকায় শুরু হয় বচসা, সেখান থেকেই খুন ৷ অভিযুক্ত সিভিক ভলান্টিয়ার পলাতক ৷

হাওড়ার উদয়নারায়ণপুরে সহকর্মীর হাতে খুন হলেন একজন সিভিক ভলান্টিয়ার ৷ ঘটনাটি ঘটেছে উদয়নারায়ণপুরের পেঁড়ো এলাকায় ৷ নিহত সিভিক ভলান্টিয়ারের নাম জয়ন্ত সাঁতরা ৷ ডিজিটাল রেশন কার্ডে আত্মীয়ের নাম না থাকায় শুরু হয় বচসা, সেখান থেকেই খুন ৷ অভিযুক্ত সিভিক ভলান্টিয়ার পলাতক ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #হাওড়া: হাওড়ার উদয়নারায়ণপুরে সহকর্মীর হাতে খুন হলেন একজন সিভিক ভলান্টিয়ার ৷ ঘটনাটি ঘটেছে উদয়নারায়ণপুরের পেঁড়ো এলাকায় ৷ নিহত সিভিক ভলান্টিয়ারের নাম জয়ন্ত সাঁতরা ৷ ডিজিটাল রেশন কার্ডে আত্মীয়ের নাম না থাকায় শুরু হয় বচসা, সেখান থেকেই খুন ৷ অভিযুক্ত সিভিক ভলান্টিয়ার পলাতক ৷

    vlcsnap-2016-03-02-10h49m58s319

    গত দু’সপ্তাহ ধরে ডিজিটাল রেশন কার্ডের সমীক্ষার কাজ করছিলেন জয়ন্ত ও তাঁর সহকর্মী বাপ্পা পণ্ডিত ৷ পুলিশ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার রেশন কার্ডের তালিকায় বাপ্পার মায়ের নাম না থাকায় শুরু হয় গোলমাল ৷ সব কিছুর জন্য জয়ন্তকে দোষারোপ করে বাপ্পা ৷ পাল্টা জবাব দেয় জয়ন্ত ৷ বচসা চলাকালীন মেজাজ হারিয়ে হঠাৎই ধারালো অস্ত্র নিয়ে জয়ন্তর উপর চড়াও হয় বাপ্পা ৷ ধারালো অস্ত্রের একের পর এক কোপে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়ে জয়ন্ত ৷ পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসক ৷ ঘটনায় বিক্ষোভে ফেটে পড়েন এলাকাবাসী ৷ মঙ্গলবার রাতে ভাঙচুর করা হয় বাপ্পার বাড়ি ৷ বাপ্পা পণ্ডিতের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করেছে পুলিশ ৷ বাপ্পা-সহ তাঁর গোটা পরিবারই পলাতক ৷

    First published: