মধুর সম্প্রীতি, মুর্শিদাবাদে চাঁদা তুলে হিন্দুর সত্‍কার করলেন মুসলিমরা

সমাজে নিয়মের বেড়াজাল অনেক। রীতি-নীতি। ব্যবধান। তারমধ্যেও এই ছবিগুলো অনেকটাই আলাদা। যেমন আলিপুরদুয়ারের ডিমডিমা চা বাগানে। বৃদ্ধের সৎকার করলেন তাঁর মুসলিম ছেলে।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 01, 2019 03:29 PM IST
মধুর সম্প্রীতি, মুর্শিদাবাদে চাঁদা তুলে হিন্দুর সত্‍কার করলেন মুসলিমরা
হিন্দু সত্‍কার করলেন মুসলিমরা
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 01, 2019 03:29 PM IST

#মুর্শিদাবাদ ও আলিপুরদুয়ার: সৎকারে ভাঙল ধর্মীয় বেড়াজাল। রাজ্যের দুই প্রান্তে দুই ছবি। মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়ায় চাঁদা তুলে এক হিন্দুর সৎকার করলেন গ্রামের সংখ্যালঘু মুসলমান বাসিন্দারা। আলিপুরদুয়ারে হিন্দু মায়ের সৎকারে কাঁধ মেলালেন মুসলমান ছেলে।

সমাজে নিয়মের বেড়াজাল অনেক। রীতি-নীতি। ব্যবধান। তারমধ্যেও এই ছবিগুলো অনেকটাই আলাদা। যেমন আলিপুরদুয়ারের ডিমডিমা চা বাগানে। বৃদ্ধের সৎকার করলেন তাঁর মুসলিম ছেলে। ডিমডিমা নদীর ধারে সাঁজু তালুকদারের বৃদ্ধাশ্রম হেভেন শেল্টার। আট মাস আগে ইসলামপুরের রাস্তায় কুমদেবী নামে ওই মহিলাকে দেখতে পান সাঁজু। বাড়ির ঠিকানা মনে নেই। মাঝে মাঝেই ডেকে ওঠেন ননী নাম ধরে। আট মাস ধরে সাঁজুই যেন কুমোদেবীর ননী। দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর শনিবার মৃত্যু হয় কুমোদেবীর। রবিবার কুমোদেবীর মুখাগ্নি করলেন সাঁজু। যোগ দিলেন স্থানীয় আদিবাসীরাও। ভাঙল ধর্মের বেড়াজাল।

অন্য ছবির সাক্ষী থাকল মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়াও। দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকার পর রবিবার রাতে মারা যান বিশু রাজমল। কিন্তু পরিবারের অবস্থা দিন-আনি-দিন খাই। পাশে দাঁড়ালেন এলাকার মুসলিম বাসিন্দারা। চাঁদা তুলে তাঁরাই সৎকারের ব্যবস্থা করলেন। ধর্মীয় রীতিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে।

ধর্ম নিয়ে রাজনীতির অভিযোগ প্রায়ই ওঠে। তবে সাঁজু তালুকদার, আসাদুল শেখরা সেসব বোঝেন না। তাঁরা শুধু বোঝেন, সবার উপরে মানুষ সত্য, তাহার উপরে নাই।

First published: 03:28:59 PM Oct 01, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर