প্রসূতির মৃত্যু ! অভিযুক্ত চিকিৎসককে গলায় মালা পরিয়ে হাতে টাকা গুজে দিল মৃতার পরিবার

প্রসূতির মৃত্যু ! অভিযুক্ত চিকিৎসককে গলায় মালা পরিয়ে হাতে টাকা গুজে দিল মৃতার পরিবার
representative image

অভিযুক্ত চিকিৎসককে মৃতদেহের সামনে গলায় মালা পরিয়ে বিক্ষোভ দেখান মৃতার পরিবারের সদস্যরা

  • Share this:

#মুর্শিদাবাদ: প্রসূতির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল লালবাগ মহকুমা হাসপাতাল। অভিযোগ, চিকিৎসকের গাফিলতিতেই মৃত্যু হয়েছে মহিলার।  মৃতার নাম শতাব্দি দত্ত হালদার(২২ )। অভিযুক্ত চিকিৎসককে মৃতদেহের সামনে গলায় মালা পরিয়ে বিক্ষোভ দেখান মৃতার পরিবারের সদস্যরা।

অভিযোগ, প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে জিয়াগঞ্জের শতাব্দি দত্ত হালদার ৫ ঘণ্টা ধরে যন্ত্রণায় ছটফট করলেও সংশ্লিষ্ট  চিকিৎসক  আসেন নি। এর পরেই  প্রসূতির মৃত্যু হয়। অভিযুক্ত চিকিৎসকের নামে মৃতার পরিবারের তরফে হাসপাতাল সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, লালবাগ হাসপাতালের বেশিরভাগ চিকিৎসকই বাইরে চেম্বার ও নার্সিংহোমে ব্যস্ত থাকেন। বারবার কল  বুক পাঠানো হলেও চিকিৎসকদের দেখা মেলেনা। মৃতের আত্মীয় নারায়ণ চন্দ্র সাহার ভাষায়, ' চিকিৎসার গাফিলতিতেই  সদ্যোজাত সন্তান ও আমাদের মেয়ে মারা গেল। সেই কারণেই আমরা মৃতদেহ সামনে রেখে ওই চিকিৎসককে গলায় মালা পরিয়ে হাতে কিছু টাকা দিই। এতে যদি কিছুটা হলেও আত্মসম্মানে লাগে। এভাবে যাতে আর রোগীর না মৃত্যু হয়, সেই কারণেই হাসপাতাল সুপারের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছি। আইনের দ্বারস্থও হব। প্রসূতি বিভাগের চিকিৎসক রা নার্সিংহোম নিয়ে ব্যস্ত থাকায় কর্তব্যরত সিস্টারা বাচ্চা প্রসব করান।'

অভিযুক্ত চিকিৎসক বলেন, ' সিস্টারদের টেলিফোনের নির্দেশ দিয়েছিলাম। 'তবে তিনি স্বীকার করে নেন তাঁকে চারবার কল বুক দেওয়া হলেও আসতে পারেননি।  লালবাগ মহকুমা হাসপাতালের সুপার অভিজিৎ দেওঘরিয়া বলেন, ' অভিযোগ পেয়েছি। এফবি তদন্তকারী দল তৈরি করা হয়েছে। মৃত্যুর সঠিক কারণ তার পরে বোঝা যাবে।'

 Pranab Kumar Banerjee

First published: February 8, 2020, 8:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर