Home /News /south-bengal /
Murder News: দিনের পর দিন নিজের মেয়েকেই ধর্ষণ, প্রতিবাদ করায় মেয়েকে খুনের অভিযোগ খোদ বাবার বিরুদ্ধে

Murder News: দিনের পর দিন নিজের মেয়েকেই ধর্ষণ, প্রতিবাদ করায় মেয়েকে খুনের অভিযোগ খোদ বাবার বিরুদ্ধে

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

ছাত্রীর মা, দিদি ও প্রতিবেশীদের অভিযোগ, নিজের উপর দিনের পর দিন হয়ে চলা যৌন নির্জাতনের প্রতিবাদ করায় মেয়েকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে খুন করে খোদ বাবা

  • Share this:

    বাবার বিকৃত যৌন লালসার শিকার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী, ঘর থেকে উদ্ধার ছাত্রীর মৃতদেহ! ছাত্রীর মা, দিদি ও প্রতিবেশীদের অভিযোগ, নিজের উপর দিনের পর দিন হয়ে চলা যৌন নির্জাতনের প্রতিবাদ করায় মেয়েকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে খুন করে খোদ বাবা, এরপর দেহ সিলিং-ফ্যান থেকে ঝুলিয়ে দেয়, যাতে সবার ধারনা হয়, ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।

    জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরেই বাবার যৌন লালসার শিকার হচ্ছিল অষ্টম শ্রেণীর এক ছাত্রী। লাগাতার তার উপর শারীরিক অত্যাচার চালাচ্ছিল খোদ নিজের বাবা, প্রতিবাদ করলে চলতো বেধরক মারধর। অভিযোগ, মা বাড়িতে না থাকার সুযোগে মেয়েকে প্রথমে যৌন নির্জাতন এবং তারপর খুন করে বাবা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ, মৃত ছাত্রীর দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। অভিযুক্ত বাবাকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। মৃতা ছাত্রীর মা,দিদি ও আত্মীয়স্বজনের অভিযোগ, বাবার যৌন লালসার প্রতিবাদ করাতেই খুন হতে হয় নির্জাতিতাকে।

    ঘটনার সূত্রপাত অনেক দিন আগেই! প্রথমে অভিযুক্তর বিকৃতকামের শিকার হয় তার বড় মেয়ে। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে অভিযুক্ত তার বড় মেয়েকে বলপূর্বক দিনের পর দিন ধর্ষণ করত। অভিযুক্ত দ্বিতীয় বিয়েও করেছিল, কিন্তু তারপরও দিনের পর দিন বড় মেয়েকে ধর্ষণ করে যেত, প্রতিবাদ করলে মারধর করত মেয়েকে। এরপর মেয়েটি প্রতিবেশী এক যুবককে বিয়ে করে সেখান থেকে পালালে এই নারকীয় অত্যাচার থেকে মুক্তি পান। কিন্তু এতে বিনদুমাত্র দমে না লম্পট বাবা! এবার তার বিকৃতকামের শিকার হয় ছোট মেয়ে। অভিযোগ উঠেছে, মঙ্গলবার মেয়ে বাবার অত্যাচারের প্রতিবাদ করায় তাকে প্রথমে ধর্ষণ এবং পরে খখুন করে অভিযুক্ত।

    মৃতার মায়ের অভিযোগ, তাঁর মেয়েকে ধর্ষণ করে খুন করে করেছে তাঁর স্বামী। অভিযুক্তকে আটক করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছে হাড়োয়া থানার পুলিশ।

    Jiaul Alam

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Murder

    পরবর্তী খবর