২০১০ সালে লাভপুরের ৩ ভাইকে খুনের ঘটনায় জামিন বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের

২০১০ সালে লাভপুরের ৩ ভাইকে খুনের ঘটনায় জামিন বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের

Mukul Roy gets bail in Lavpur Murder/ মুকুল রায়ের জামিন-Photo- News 18 Bangla

ব্যক্তিগত ৫০ হাজার টাকা বন্ডে বোলপুর আদালত থেকে পেলেন জামিন৷

  • Share this:

    #বোলপুর: সিপিআইএম পরিবারের ৩ ভাইকে খুনের অভিযোগে বোলপুর মহকুমা আদালত থেকে জামিন নিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। ৫০ হাজার টাকা বণ্ডে জামিল পান তিনি। দল বদলের পর লাভপুরে খুনের ঘটনায় নতুন করে সাপ্লিমেন্টারী চার্জশিট দিয়েছিল পুলিশ। সেই চার্জশিটে নাম ছিল মণিরুল ইসলাম ও মুকুল রায়ের। সেই মামলায় এদিন বোলপুর কোর্টে জামিন নিলেন মুকুল রায়। বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী তিনি, তাই মামলা প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য করতে চাননি মুকুল রায়।

    বালিরঘাটের দখলদারির দ্বন্দ্ব মেটাতে ২০১০ সালের ৪ জুন লাভপুরের নবগ্রামে নিজের বাড়ির উঠানে সালিশি সভা ডেকেছিলেন মণিরুল ইসলাম । তখন তিনি ফরওয়ার্ড ব্লকের নেতা ছিলেন । সেই সালিশি সভায় বচসার জেরে পিটিয়ে মারার অভিযোগ ওঠে কটুন শেখ, ধানু শেখ ও তরুক শেখকে । মণিরুল ইসলাম সহ ৫২ জনের নামে লাভপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয় । ঘটনার পরে পরেই তৃণমূলে যোগ দেন তিনি । পরে লাভপুর বিধানসভা থেকে তৃণমূলের টিকিটে জয়ী হন। ২০১১ সালে একটি জনসভা থেকে "তিনজনকে মেরে দিয়েছি" বলে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন মণিরুল । ২০১৫ সালে এই মামলায় পুলিশ বোলপুর আদালতে ৩০ জনের নামে চার্জশিট জমা দেয় । সেই চার্জশিটে নাম বাদ যায় এই মণিরুলের। পরে নিহতের পরিবার তদন্ত চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। ২০২০ সালের ৪ সেপ্টেম্বর ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট৷

    তৃণমূল ছেড়ে দিল্লিতে গিয়ে কৈলাস বিজয়বর্গীয় ও মুকুল রায়ের মাধ্যমে বিজেপি-তে যোগ দেন মণিরুল। হাইকোর্টের নির্দেশ মত ফের তদন্ত শুরু করে পুলিশ। ২০২০ সালের ৪ ডিসেম্বর বোলপুর আদালতে চার্জশিট জমা দেয় পুলিশ। জানা গিয়েছে, সেই চার্জশিটে নাম রয়েছে মণিরুল ইসলাম ও মুকুল রায়ের। ২০১০ সালে ঘটনার সময় তৃণমূলের অন্যতম নেতা ছিলেন মুকুল রায়। প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে চার্জশিটে নাম রয়েছে মুকুল রায়ের।

    তাই হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়েছেন বিজেপি নেতা তথা বিধানসভার প্রার্থী মুকুল রায়। এদিন, বোলপুর আদালতে থেকে জামিন নিলেন তিনি। বোলপুর আদালতের এসিজেএম অয়ন কুমার বন্দ্যোপাধ্যায় মুকুল রায়ের জামিন মঞ্জুর করেন।তবে আদালত থেকে বেরিয়ে তিনি কোন মন্তব্য করতে চাননি। মুকুল রায় বলেন, "২৬ এপ্রিল পর্যন্ত আমি কোন মন্তব্য করতে পারব না মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে।"

    মুকুল রায়ের আইনজীবী দিলীপ ঘোষ বলেন, "লাভপুরে তিন ভাইকে খুনে সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটে মুকুল রায়ের নাম আছে। তাই ওই মামলা থেকে এদিন জামিন নিলেন তিনি।"

     Indrajit Ruj

    Published by:Debalina Datta
    First published: