Home /News /south-bengal /
সিএএ কার্যকর না হওয়ায় ক্ষুদ্ধ সাংসদ শান্তনু ঠাকুর!‌ কেন্দ্রের বিরুদ্ধেই চড়ালেন সুর

সিএএ কার্যকর না হওয়ায় ক্ষুদ্ধ সাংসদ শান্তনু ঠাকুর!‌ কেন্দ্রের বিরুদ্ধেই চড়ালেন সুর

ঠাকুর নগরে মতুয়াদের পীঠস্থানে প্রধানমন্ত্রী মোদির আসার পর তিনি মতুয়া সমাজের উন্নয়ন ও নাগরিকত্ব সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতিতে বিজেপির পতাকায় সাংসদ হন দাবী তাঁর।

  • Share this:

অনেকদিন থেকেই আইন মতো নাগরিকত্ব পাওয়ার দাবীতে আন্দোলন করে আসছে মতুয়ারা। কখনও ধর্মতলায়। আবার কখনও বা দিল্লির দরবারে। গত লোকসভা ভোটের আগে ঠাকুরনগরে মতুয়াদের ধর্ম সম্মেলনে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মতুয়াদের নাগরিকত্বের সমস্যা তিনি মেটাবেন।

পার্লামেন্টে দেশের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল এল। দেশ পেল নতুন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন। সেই সংশোধিত আইন নিয়ে দেশ জুড়ে আন্দোলনের আগেই মতুয়া সমাজ থেকে সাংসদ হয়েছেন তৃনমূল ছেড়ে আসা শান্তনু ঠাকুর। ঠাকুর নগরে মতুয়াদের পীঠস্থানে প্রধানমন্ত্রী মোদির আসার পর তিনি মতুয়া সমাজের উন্নয়ন ও নাগরিকত্ব সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতিতে বিজেপির পতাকায় সাংসদ হন দাবী তাঁর। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে সরাসরি এরাজ্যে তৃনমুলের বিরোধিতা করে তিনি বোঝাতে থাকেন এই আইনে সহজেই মতুয়ারা নাগরিকত্ব পাবেন। দীর্ঘ নয় মাস পরও সেই আইনে কোন মতুয়ার নাগরিকত্ব দেওয়া হয়নি। আর তাতেই আজ বারাসতে মতুয়াদের এক ধর্মীয় সভায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ উগরে দেন বনগাঁর বিজেপি সাংসদ। তিনি বলেন মতুয়া ভক্তরা ক্ষিপ্ত। আইন পাশের পর থেকে তারা আশান্বিত হয়ে রয়েছে। নয় মাস হয়ে গেলে এখন পর্যন্ত সিএএ সারা দেশে অসম বাদে কোথাও লাগু হয়নি। আমি মতুয়াদের প্রতিনিধি হয়ে গিয়েছি। মতুয়া ভক্তদের কাছে আমি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বহু মতুয়া ভক্ত, পাগল, গোঁসাই আমায় প্রশ্ন করছে কবে নতুন আইনে নাগরিকত্ব পাবেন। উত্তর দিতে পারছি না। আমি দুঃখিত। বনগাঁর বিজেপি সাংসদের আরো অভিযোগ সাংসদ হিসাবে দিল্লিতে বারবার নাগরিকত্ব আইন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছি কোন সদুত্তোর পাইনি।গতকাল আইন তৈরি পর নয় মাস পার হয়েছে।আরো তিন মাস সময় বাড়ানো যাবে। কেন্দ্র কি করছে জানি না।এখন কি করে তার সেদিকেই তাকিয়ে আছি।তবে মতুয়াদের নাগরিকত্বের সমস্যার সমধান না হলে, এরপর মতুয়া ভক্তরা যে সিদ্ধান্ত নেবে সেটাই হবে আমার সিদ্ধান্ত বলে হুঙ্কার ছাড়েন সারা ভারত মতুয়া মহাসংঘের সংঘাধিপতি ও সাংসদ শান্তনু ঠাকুর । কেন্দ্রের এই আইন লাগু করার দায় শুধু মাত্র কেন্দ্রের বলে জানান তিনি। তাই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের সঙ্গে বারবার তিনি আলোচনা করেছেন সিএএ লাগু করার জন্য। কিন্তুু তিনি বারবার হতাশ হয়েছেন বলে এই দিন ক্ষোভ উগরে দেন।

RAJARSHI Roy

Published by:Uddalak Bhattacharya
First published:

Tags: BJP, CAA, NRC

পরবর্তী খবর