সাবধান! হ্যান্ডেল লক ভেঙে মোটর সাইকেল নিয়ে চম্পট দিচ্ছে চোর

সাবধান! হ্যান্ডেল লক ভেঙে মোটর সাইকেল নিয়ে চম্পট দিচ্ছে চোর

সাবধান ! আশপাশেই রয়েছে মোটর সাইকেল চোরেরা ! একটু অসাবধান হয়েছেন কী চোখের নিমেষে সাইকেল হাওয়া...

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: সাবধান ! আশপাশেই রয়েছে মোটর সাইকেল চোরেরা !  একটু অসাবধান হয়েছেন কী চোখের নিমেষে সাইকেল হাওয়া। কীভাবে তা সম্ভব ? তবে খোলসা করেই বলা যাক !  ধরুন,  রাস্তার ধারে মোটর সাইকেল রেখে আপনি হয়তো দোকানে ঢুকলেন কেনাকাটার জন্য। কয়েক মিনিট পর ফিরে এসে দেখলেন আপনার শখের মোটর সাইকেলটি নেই। ততক্ষণে তা হাপিস করে দিয়েছে চোরের দল। আপনি যদি পূর্ব বর্ধমান, বাঁকুড়া বা হুগলি জেলার বাসিন্দা হন তবে সাবধান হোন আরও বেশি। কারণ, এই ৩ জেলা লাগোয়া এলাকায় এক বড়সড় মোটর সাইকেল চুরি চক্রের হদিশ পেয়েছে পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ।

মোটর সাইকেল রেখে যাওয়ার সময় দেখে নিন চাবি খুলে পকেটে ভরেছেন কিনা। অন্যমনস্ক হয়ে মোটর সাইকেল রেখে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে চলে  গেলে তো চোরেদের সোনায় সোহাগা। তবে হ্যান্ডেল লক করে চাবি পকেটে পুরেও নিশ্চিন্ত হওয়ার কিছু নেই। খট করে হ্যান্ডেল লক ভেঙে মোটর সাইকেল নিয়ে চোখের নিমেষে পালিয়ে যাওয়া তাদের বাঁ হাতের খেল।

পূর্ব বর্ধমানের মাধবডিহি থেকে সেখ গিয়াসুদ্দিন নামে এক যুবককে একটি চোরাই মোটর সাইকেল সহ গ্রেফতার করে পুলিশ। তাকে জেরা করে বেশ কিছু সূত্র পায় পুলিশ। সেই সব সূত্রের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে মাধবডিহি ও হুগলির গোঘাটের কয়েকটি ডেরা থেকে আরও ২৭ টি মোটর সাইকেল উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় আরও ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

পূর্ব বর্ধমানের জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় বলেন, হ্যান্ডেল লক ভেঙে মোটর সাইকেল নিয়ে চম্পট দিচ্ছিল দুষ্কৃতীরা। ধৃতদের জেরা করে এই তথ্য সামনে এসেছে। তদন্তকারী পুলিশ অফিসাররা বলছেন, চোরেদের কাছে মাস্টার কি থাকে। যেকোনও চাবি খুলে যায়। তখন গাড়ি চালিয়ে চম্পট দিতেও কোনও সমস্যা হয় না।

হুগলি জেলার সীমান্তে বর্ধমানের মাধবডিহি। সহজেই পূর্ব বর্ধমানের চোরাই মোটর সাইকেল এখান থেকে হুগলির গোঘাটে পাচার করা হচ্ছিল। একইভাবে বাঁকুড়া জেলায় মোটর সাইকেল গোঘাটে বা হুগলি জেলায় চুরি করা মোটর সাইকেল মাধবডিহিতে মজুত করা হচ্ছিল। জেলা পুলিশ জানিয়েছে, একটা বড় চক্র এই কাজে জড়িত। চক্রের বাকিদেরও হদিশ পাওয়ার চেষ্টা চলছে।

Saradindu Ghosh

First published: January 17, 2020, 12:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर