corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা মোটর সাইকেলও স্যানিটাইজ করা হচ্ছে রাজ্যের এই শহরে!

রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা মোটর সাইকেলও স্যানিটাইজ করা হচ্ছে রাজ্যের এই শহরে!
কেন্দ্রের প্রকাশিত এই আঠারোটি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মধ্যে নেই পশ্চিমবঙ্গের নাম৷ PHOTO- FILE

শনিবার বর্ধমান শহরে রাস্তার পাশে দাঁড় করিয়ে রাখা মোটর সাইকেল, গাড়ি স্যানিটাইজ করা হল।

  • Share this:

#বর্ধমান: আগুন নেভানোর বদলে এখন জীবানু মুক্তির কাজে দিনভর ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে দমকল বিভাগের কর্মীদের। প্রতিদিনই জলের ট্যাঙ্কে কীট নাশক ভর্তি করে বিভিন্ন এলাকা স্যানিটাইজ করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন পূর্ব বর্ধমান জেলার দমকল কর্মীরা। শনিবার বর্ধমান শহরে রাস্তার পাশে দাঁড় করিয়ে রাখা মোটর সাইকেল, গাড়ি স্যানিটাইজ করা হল। দমকল দফতরের কর্মীরা বলছেন, পুলিশ চিকিৎসক সহ জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্তদের বাড়ির বাইরে যেতেই হচ্ছে। কাজ শেষ হল সেই মোটর সাইকেল, গাড়ি বাড়ি ফিরছে। তার মাধ্যমেও বাইরে থেকে করোনা ভাইরাস এলাকায় বা বাড়িতে ঢোকার আশংকা থেকে যাচ্ছে। তার ওপর ধাতব অংশে এই ভাইরাস বেশিক্ষণ সক্রিয় থাকে বলে শোনা যাচ্ছে। তাই ঝুঁকি না নিয়ে অন্যান্য অংশের সঙ্গে রাস্তার পাশে দাঁড় করানো মোটর সাইকেলও স্যানিটাইজ করছেন দমকল কর্মীরা।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে লক ডাউন চলছে। করোনার উপসর্গ নিয়ে আসা রোগীদের বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কাটোয়া ও কালনা মহকুমা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হচ্ছে। সেখান থেকে তাদের পাঠানো হচ্ছে বর্ধমান শহর লাগোয়া গাঙপুরের কোভিড নাইন্টিন হাসপাতালে। সেখান থেকে তাদের লালারস পরীক্ষার জন্য পাঠানো হচ্ছে কলকাতা। জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গেছে, শনিবার বিকেল পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় কোনও করোনা আক্রান্তের সন্ধান মেলেনি। তবে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে নজরদারি আরও কড়াকড়ি করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, করোনা চিকিৎসার সব রকম পরিকাঠামো তৈরি আছে। সংক্রমণ ঠেকাতেও সব রকম প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। সেই জন্যই দমকল দফতরের উদ্যোগে নিয়মিত স্যানিটাইজ করা হচ্ছে বিভিন্ন এলাকা।

বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্ত্বর নির্দিষ্ট সময় অন্তর স্যানিটাইজ করা হচ্ছে। বর্ধমান থানা, বর্ধমান মহিলা থানা, বিভিন্ন পুলিশ ফাঁড়ি, পুরসভা ভবন নিয়মিত জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে। দমকল দফতরের কর্মীরা বলছেন, যেসব জায়গায় নিয়মিত বাসিন্দারা যাতায়াত করছেন সেই সব এলাকা স্যানিটাইজ করার কাজে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। এই কাজ এখন ধারাবাহিক ভাবে চালিয়ে যাওয়া হবে।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: April 18, 2020, 7:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर