corona virus btn
corona virus btn
Loading

গঙ্গায় ভাঙন, রাতের অন্ধকারেই তলিয়ে গেল ১৫-রও বেশি বাড়ি, আতঙ্কে দিশেহারা স্থানীয়রা

গঙ্গায় ভাঙন, রাতের অন্ধকারেই তলিয়ে গেল ১৫-রও বেশি বাড়ি, আতঙ্কে দিশেহারা স্থানীয়রা

আশ্রয়হীন বহু মানুষ

  • Share this:

#কামালপুর:হঠাৎই ভাঙন গঙ্গায়। সামশেরগঞ্জের শিবনগরের কামালপুর গ্রামের প্রায় ১৫টি  বাড়ি তলিয়ে গেল গঙ্গার জলে। গঙ্গায় জলস্ফীতি কমে যাওয়ায় সোমবার রাত থেকেই ভাঙ্গন দেখা যায় এলাকায়। মঙ্গলবার সকালে কামালপুর এলাকার প্রায় ১৫ টি বাড়ি তলিয়ে গিয়েছে বলে গ্রামবাসীদের অভিযোগ।

আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন গঙ্গার তীরবর্তী এলাকার মানুষজন। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, বেশ কয়েক বছর ভাঙ্গনের হাত থেকে রেহাই মিলেছিল।তবে, আবার পাড় ভাঙতে শুরু করেছে গঙ্গার। প্রশাসনকে বারবার বলা হলেও ভাঙ্গন রোধের জন্য কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি। ভাঙনে বাড়ি তলিয়ে যাওয়ায় খোলা আকাশের নীচে ত্রিপল খাটিয়ে রয়েছেন অসহায় বাসিন্দারা। এলাকার বিধায়ক আমিনুল ইসলাম ভাঙ্গন বিধ্বস্ত এলাকায় গিয়ে সামান্য কিছু খাবার দিয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের অভিযোগ, প্রশাসনের তরফ থেকে কেউ আসেননি।

স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুল শেখের কথায়,  '' আচমকাই ভাঙ্গন শুরু হয়। ভোর রাতে তলিয়ে যায় বাড়ি। কোনওমতে, পরিবারের সবাইকে নিয়ে বাইরে পালিয়ে আসতে পেরেছি। আমার সব শেষ।'' শিউলি বিবির ভাষায়, '' সোমবার সন্ধ্যা থেকেই বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছিল। রাতে তলিয়ে যায় বাড়ি। জিনিসপত্র কিছুটা বের করতে পারলেও বেশিরভাগ গঙ্গা গর্ভে চলে গিয়েছে। বাচ্চা মেয়েকে নিয়ে ত্রিপল খাটিয়ে দিন কাটাচ্ছি। সরকারের কাছে অনুরোধ, সরকার আমাদের থাকার ব্যবস্থা করে দিক।''  এলাকার বিধায়ক আমিনুল ইসলাম বলেন, '' এই সময়ে সাধারণত ভাঙন হয় না। সেচ মন্ত্রীকে জানিয়েছি। ভাঙন রোধের কাজ না করলে আরও অনেক বাড়িই গঙ্গাগর্ভে তলিয়ে যাবে।''

 Pranab Kumar Banerjee

First published: February 25, 2020, 9:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर