Home /News /south-bengal /

আগ্নেয়াশস্ত্র দেখিয়ে মোবাইল ছিনতাই, হলদিয়ায় গণপিটুনি ৩ যুবককে

আগ্নেয়াশস্ত্র দেখিয়ে মোবাইল ছিনতাই, হলদিয়ায় গণপিটুনি ৩ যুবককে

নিজস্ব চিত্র ৷

নিজস্ব চিত্র ৷

পালানোর সময় তিন দুষ্কৃতীকে পাকড়াও করে জনতা। এরপর গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

  • Share this:

    #হলদিয়া: আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে এক ব্যক্তির থেকে মোবাইল ছিনতাই করে পালাচ্ছিল তিন দুষ্কৃতী। এক সাইকেল আরোহী দেখতে পেয়ে নিজের সাইকেল তুলে ছুড়ে মারেন। পালানোর সময় তিন দুষ্কৃতীকে পাকড়াও করে জনতা। এরপর গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পূর্ব মেদিনীপুরের হলদিয়ার ভবানীপুরের ঘটনা। আরও তিনজন ছিনতাই করতে এসেছিল বলে জানা গিয়েছে। তাঁদের খোঁজ চলছে। পরিকল্পনা ছিল মোবাইল ছিনতাইয়ের । এক সাইকেল আরোহীর উপস্থিত বুদ্ধিতে ব্যর্থ হল চেষ্টা। বেধড়ক মারধর করে স্থানীয়রাই তিন দুষ্কৃতীকে তুলে দেয় পুলিশের হাতে। ঘটনা শুক্রবার সকালের। হলদিয়ার ভবানীপুরে অফিস যাওয়ার জন্য বাসস্ট্যান্ডে দাঁড়িয়েছিলেন এক ব্যক্তি। ফোনে কথা বলছিলেন তিনি। অভিযোগ, আচমকাই বাইকে তিন যুবক এসে চড়াও হয়। ওই ব্যক্তির মাথায় আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে মোবাইল ফোন কেড়ে পালাতে যায় তিনজন। ওই ব্যক্তি চেঁচিয়ে উঠলে এক সাইকেল আরোহী ঘটনা দেখতে পান। তিনি নিজের সাইকেল তুলে ছুড়ে মারেন ওই দুষ্কৃতীদের দিকে। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাইক থেকে পড়ে গেলে তিনজনকে ধরে ফেলে স্থানীয়রাই। এরপরই গণধোলাই দেওয়া হয়। ভবানীপুর থানার পুলিশ এসে গ্রেফতার করে সুব্রত মণ্ডল, শুভংকর গুড়িয়া ও উত্তম পড়ুয়া নামে ওই তিন যুবককে। মোবাইল ও আগ্নেয়াস্ত্রটি উদ্ধার হয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই তিনজন চুরি-ছিনতাইয়েই যুক্ত। কয়েকদিন আগেই জেল থেকে ছাড়া পেয়েছে অভিযুক্তরা।

    আরও পড়ুন: এটিএম জালিয়াতিতে নয়া তথ্য, সিসিটিভি ফুটেজে এল সন্দেহভাজনের ছবি

    সম্প্রতি কয়েকমাস ধরে শিল্পশহর হলদিয়ায় ছিনতাইবাজদের বাড়বাড়ন্তে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ। পুলিশের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে একাধিকবার। এদিন ঘটনাস্থলে পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভও দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। ভবানীপুর থানার ওসি গোপাল পাঠককে ধাক্কা মারারও অভিযোগ উঠেছে।

    First published:

    Tags: Haldia, Lynching, Mob Lynching

    পরবর্তী খবর