• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • দলনেত্রীর সভায় অনুপস্থিত বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল, আগামীকাল জানাবেন অনুপস্থিতির কারণ 

দলনেত্রীর সভায় অনুপস্থিত বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল, আগামীকাল জানাবেন অনুপস্থিতির কারণ 

 রাজনৈতিক মহলের মতে, বেশ কয়েকদিন ধরেই বেসুরো প্রবীর ঘোষাল।

রাজনৈতিক মহলের মতে, বেশ কয়েকদিন ধরেই বেসুরো প্রবীর ঘোষাল।

রাজনৈতিক মহলের মতে, বেশ কয়েকদিন ধরেই বেসুরো প্রবীর ঘোষাল।

  • Share this:

#উত্তরপাড়া: পুরশুড়ায় দলনেত্রীর সভা। আর সেই সভায় হাজির থাকলেন না উত্তরপাড়ার বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল। ঘনিষ্ঠমহলে তিনি জানিয়েছেন, অপমানিত বোধ করেছেন তাই তিনি দলনেত্রীর সভায় অনুপস্থিত থাকলেন। ভোটের আগে বিধায়কের অনুপস্থিতির জের, হুগলি জেলায় ফের প্রকাশ্যে নিয়ে আসল গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে জেলার দুই আসন জিতলেও, হুগলি লোকসভা আসনে হেরে যায় তৃণমূল কংগ্রেস। বহু বিধানসভা আসনে পিছিয়ে যায় তৃণমূল কংগ্রেস। ভোটে এই খারাপ ফলের কারণ হিসাবে উঠে আসে গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব অভিযোগ। যা মেটাতে কখনও তৃণমূল ভবনে, কখনও আবার কালীঘাটে ডেকে পাঠিয়ে মিটিং করেছে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব। উপরমহল থেকে একসাথে চলার বার্তা দিলেও আদপে তা যে হয়নি এদিন খোদ দলনেত্রীর সভায় উত্তরপাড়ার বিধায়ক অনুপস্থিত থাকায় সেদিকেই ইঙ্গিত করছে রাজনৈতিক মহল। কেন এলেন না প্রবীর ঘোষাল? ঘনিষ্ঠ মহলে তিনি জানিয়েছেন, এক সাংসদের আচরণ যথেষ্ট অপমানজনক। এমনকি বিধায়কের অর্থনাকুল্যে এক কলেজের প্রশাসনিক ভবনের ফলক থেকে তার নাম বাদ দেওয়া হচ্ছে বলে ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন তিনি। যদিও মুখ্যমন্ত্রীর সভায় তাকে খোদ জেলা সভাপতি আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। এ বিষয়ে হুগলি জেলার তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি দিলীপ যাদব জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী আমাদের সভানেত্রী তিনি আসছেন জেলায়। সবাইকে এই বিষয়ে জানানো হয়েছে। সকলের নিজে থেকে যোগ দেওয়া উচিত ছিল। আমার সাথে গত পরশু ওনার ফোনে কথা হয়েছিল। না আসার ব্যাপারে উনি কিছু জানাননি। যদিও অপমানিত হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে সাংসদের সাথে বিধায়কের দুরত্ব নিয়েই চর্চা চলছে।

অপরদিকে রাজনৈতিক মহলের মতে, বেশ কয়েকদিন ধরেই বেসুরো প্রবীর ঘোষাল। দলে তার ঘনিষ্ঠ নেতা-মন্ত্রী রাজীব বন্দোপাধ্যায়। রাজীব বন্দোপাধ্যায় মন্ত্রীত্ব ছেড়ে দেওয়ার পরে জল্পনা বেড়েছে তিনি বিজেপি'তে যোগ দিতে পারেন। প্রবীর ঘোষালও কি সেই পথেই পা বাড়াচ্ছেন প্রশ্ন ওয়াকিবহাল মহলে। তবে এদিন বেসুরোদের কড়া বার্তা শুনিয়েছেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। দলীয় শৃঙ্খলা ভাঙলে কাউকে রেয়াত করা হবে না বলে জানিয়েছেন তিনি।

ABIR GHOSHAL

Published by:Debalina Datta
First published: