কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পেলেন বিজেপিতে যোগ দেওয়া কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু

কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পেলেন বিজেপিতে যোগ দেওয়া কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু

কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু বলেন, নিরাপত্তা আঁটোসাঁটো করা হলেও দল ছাড়ার পর থেকে তিনি কোনও নিরাপত্তার অভাব বোধ করেননি।

কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু বলেন, নিরাপত্তা আঁটোসাঁটো করা হলেও দল ছাড়ার পর থেকে তিনি কোনও নিরাপত্তার অভাব বোধ করেননি।

  • Share this:

# কালনা: নিরাপত্তা বাড়ল কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডুর। তাঁর নিরাপত্তার জন্য চারজন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের নিযুক্ত করা হয়েছে। শুক্রবার থেকেই বাড়তি নিরাপত্তা পেয়েছেন এই বিধায়ক। কিছুদিন আগেই তিনি শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। তারপর থেকেই বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস নির্বাচনী প্রচারে তাঁর কড়া সমালোচনা করে আসছিল। ইতিমধ্যেই বিজেপিতে যোগ দেওয়া বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডুকে টেট কেলেঙ্কারির নায়ক বলে চিহ্নিত করে লাগাতার তাঁর বিরুদ্ধে বক্তব্য রেখে চলেছে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা ও রাজ্য নেতৃত্ব। এসব কারণেই তাঁর নিরাপত্তা বাড়ানো হলো বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তার নিরাপত্তার জন্য চারজন কেন্দ্রীয় বাহিনী জওয়ান নিযুক্ত করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। রয়েছে রাজ্য পুলিশের নিরাপত্তাও।

এ ব্যাপারে কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু বলেন, তৃণমূল কংগ্রেস ছাড়ার পর থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচিতে শাসক দলের নেতারা তাদের বক্তব্যে আমাকে নিশানা করছিল। সেই বক্তব্যে কখনও কখনও হুমকিও ছিল।সেই পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপি নেতৃত্ব আমাকে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তার জন্য আবেদন করতে পরামর্শ দিয়েছিল। সেই পরামর্শের ভিত্তিতে আমি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে নিরাপত্তার জন্য আবেদন জানাই। সেইমতো আমাকে কেন্দ্রীয় সরকার এক্স ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দিয়েছে। এজন্য চারজন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানকে আমার নিরাপত্তার জন্য নিযুক্ত করা হয়েছে। সর্বক্ষণ তারা আমার নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছে। তবে রাজ্য পুলিশের নিরাপত্তাও রয়েছে দেখছি।

কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু বলেন, নিরাপত্তা আঁটোসাঁটো করা হলেও দল ছাড়ার পর থেকে তিনি কোনও নিরাপত্তার অভাব বোধ করেননি। নিজেই বাজার বা অন্যান্য কাজকর্ম করতে কোনও অসুবিধা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন বিজেপিতে যোগ দেওয়া এই বিধায়ক। বিশ্বজিৎ কুন্ডুকে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা দেওয়ার বিষয়টিকে কটাক্ষ করতে ছাড়ছে না রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের স্থানীয় নেতৃত্ব। কালনার তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা কালনার পুরপ্রধান দেবপ্রসাদ বাগ বলেন, উনি টেট কেলেঙ্কারির নায়ক। পরিবারের তের জনকে শিক্ষকের চাকরি দিয়েছেন। এরপর দেখা যাবে চোর ডাকাত দুষ্কৃতীদের কেন্দ্র জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দিচ্ছে।

পরিবারের একাধিক সদস্যকে প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি দেওয়ার প্রসঙ্গে বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু বলেন, আমি শিক্ষক নিয়োগ বোর্ডের কোন পদাধিকারী ছিলাম না বা আমি কোনও মন্ত্রীও ছিলাম না দল তালিকা চেয়েছিল। আমি সেই তালিকা দিয়েছিলাম।আমার মতো অনেকেই সেই তালিকা দিয়েছিল। রাজনৈতিক স্বার্থেই শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে তাঁর দিকে অভিযোগের আঙুল তোলা হচ্ছে বলে দাবি বিধায়কের।

Saradindu Ghosh

Published by:Debalina Datta
First published: