তিন তিনবার নিজের বিয়ে আটকেছে, সাহসিকতার পুরস্কার পেল হরিহরপাড়ার নাবালিকা

তিন তিনবার নিজের বিয়ে আটকেছে, সাহসিকতার পুরস্কার পেল হরিহরপাড়ার নাবালিকা
বিয়ে আটকানোর জন্য সে নিজে পায়ে হেঁটে প্রায় ১৩ কিলোমিটার রাস্তা অতিক্রম করেছিল অভইযোগ জানানোর জন্য ।

বিয়ে আটকানোর জন্য সে নিজে পায়ে হেঁটে প্রায় ১৩ কিলোমিটার রাস্তা অতিক্রম করেছিল অভইযোগ জানানোর জন্য ।

  • Share this:

Pranab Kumar Banerjee

#হরিহরপাড়া: সাহসিকতার জন্য মুর্শিদাবাদের হরিহারপাড়া থানার অন্তর্গত প্রদীপ ডাঙ্গা গ্রামের নাবালিকাকে বিশেষ বীরঙ্গনা পুরস্কার প্রদান করল পশ্চিমবঙ্গ সরকারের শিশু সুরক্ষা কমিশন। শুক্রবার ওই নাবালিকা নুরবানু খাতুনের নামে  কলকাতায় রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়। যদিও এ দিন সশরীরে নূরবানু উপস্থিত না থাকতে পারলেও তাঁর হয়ে হরিহর পাড়ার সিনিয়র কো-অর্ডিনেটর জাকিরন বিবি এই পুরস্কার গ্রহণ করে। প্রসঙ্গত, মাস কয়েক আগে একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে তার বাড়ির সদস্যদের জোর করে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা ভেস্তে দিয়েছিল। বিয়ে আটকানোর জন্য সে নিজে পায়ে হেঁটে প্রায় ১৩ কিলোমিটার রাস্তা অতিক্রম করে হরিহারপাড়া ব্লকের সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক তৎকালীন পূর্ণেন্দু সান্যালের দ্বারস্থ হয়।

এখানেই শেষ নয়, অতীতে একইভাবে নিজের তিন তিনবার নাবালিকা বিবাহ আটকেছে ওই সাহসী তরুণী। এ দিন সেই তরুণীকে কুর্নিশ করতেই পুরস্কার প্রদান করা হয় । আজ হরিহারপাড়া পঞ্চায়েত সমিতির সভা কক্ষে প্রধানসহ কন্যাশ্রী যোদ্ধাদের উপস্থিতিতে একটি ছোট্ট অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে বীরঙ্গনা পুরস্কার সহ অন্যান্য পুরস্কার তুলে দেন কন্যাশ্রী যোদ্ধা নুরবানু খাতুনকে হরিহারপাড়া বিডিও রাজা ভৌমিক । উপস্থিত ছিলেন বিডিও রাজা ভৌমিক, জয়েন্ট বিডিও বিধান মৃধা, পিডিও ইয়াদুল শেখ, সমাজ কল্যাণ আধিকারিক শ্যামসুন্দর মন্ডল সহ আরও অনেকে ।


Published by:Simli Raha
First published:

লেটেস্ট খবর