Home /News /south-bengal /
Murder: প্রেমিককে পছন্দ নয় মায়ের, বাধা সরিয়ে ফেলতে প্রেমিককে নিয়ে মেয়ে যা করল...

Murder: প্রেমিককে পছন্দ নয় মায়ের, বাধা সরিয়ে ফেলতে প্রেমিককে নিয়ে মেয়ে যা করল...

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

Murder: অনিতা দত্তের পরিবারের তরফে খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয় নাবালিকা মেয়ে ও তার প্রেমিক এবং প্রেমিকের বাবা মায়ের বিরুদ্ধে।

  • Share this:

    #মেদিনীপুর: নাবালিকা মেয়ের প্রেম মেনে নিতে পারেননি মা। তাই প্রেমিকের সঙ্গে পরিকল্পনা করে প্রেমের রাস্তা থেকে চিরদিনের মতো মাকেই সরিয়ে দিলো মেয়ে ও তার প্রেমিক। প্রেমিকার দ্বারা তার মাকে খুন করার অভিযোগে গ্রেফতার প্রেমিক ও তার বাবা-মা। গ্রেফতার করা হয়েছে নাবালিকা প্রেমিকাকেও। ঘটনাটি ঘটেছে মেদিনীপুর কোতোয়ালী থানার অন্তর্গত পাটনা বাজার এলাকায়। পুলিশ ও মৃতার পরিবার সুত্রে জানা যায়, গত ১৫ ই এপ্রিল ১ লা বৈশাখের দিন মেদিনীপুর শহরের পাটনা বাজারের বাসিন্দা অংশুজিৎ দত্তের নাবালিকা মেয়ে তার মা অনিতা দত্তকে কোল্ড ড্রিঙ্কস খাওয়ানোর পর পরই অনিতা দেবী হৃদরোগে অচৈতন্য হয়ে পড়ে।

    এর পর পরিবার পরিজনেরা অনিতা দত্তকে তড়িঘড়ি মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে, চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে। অনিতা দেবীর স্বামী-সহ পরিবার পরিজনেরা বুঝে উঠতে পারছিলেন না কিভাবে ঘটনাটি ঘটল। কারণ তখন পর্যন্ত অনিতা দেবীর পরিবারের কেউই টের পাননি নাবালিকা মেয়ে ও তার প্রেমিকের এই পরিকল্পনার বিষয়ে। হঠাৎ দিন কয়েক আগে নাবালিকা মেয়ের মোবাইল চ্যাট দেখে নাবালিকার বাবা-সহ পরিবার পরিজনেরা জানতে পারে, তাদের নাবালিকা মেয়ে তার প্রেমিক জিৎ আড্যর প্ররোচনা করে অনিতা দত্তকে কোল্ড ড্রিঙ্কস এর সঙ্গে কিছু মিশিয়ে খাইয়ে দেয়।

    আরও পড়ুন: আর অপেক্ষা নয়, অবশেষে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে গুরুদায়িত্ব দিল তৃণমূল!

    এর পরই অনিতা দত্তের পরিবারের তরফে খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয় নাবালিকা মেয়ে ও তার প্রেমিক এবং প্রেমিকের বাবা মায়ের বিরুদ্ধে। অভিযোগের ভিত্তিতে মেদিনীপুর কোতয়ালী পুলিশ চারজনকে গ্রেফতার করে। শুক্রবার নাবালিকা মেয়েকে জুভেনাইল কোর্টে তোলা হয় এবং বাকি তিনজনকে মেদিনীপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক একজনকে তিন দিনের পুলিশ হেফাজত ও বাকিদের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন। এমনটাই জানিয়েছেন সরকারি পক্ষের আইনজীবী সৈয়দ নাজিম হাবিব।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Murder

    পরবর্তী খবর