corona virus btn
corona virus btn
Loading

পুলিশের হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করে নিজের বিয়ে ভাঙল নাবালিকা

পুলিশের হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করে নিজের বিয়ে ভাঙল নাবালিকা
representative image
  • Share this:

#ভাঙড়: ভাঙড়ের কৃষ্ণমাটি গ্রামের মাংস ব্যবসায়ী রফিকুল মোল্লা এক ছেলে ও এক মেয়ের বাবা। মেয়ে একাদশ শ্রেনিতে পড়ছে, ভর্তি হয়েছে স্থানীয় ভগবানপুর হাইস্কুলে। কিন্তু ইতিমধ্যেই তার বিয়ে দেওয়ার জন্য তোরজোড় শুরু করেছেন রফিলুক মোল্লা। পাশের গ্রাম গুছুড়িয়াতে এক পাত্রের সঙ্গে পাকা কথাবার্তাও হয়ে গিয়েছে।

বছর ষোলোর ওই নাবালিকা এখনই বিয়ে না করে পড়তে চায়। কিন্তু বাড়ির লোক নাছোড়বান্দা, বিয়ে দেবেই! বহুবার তাদের বুঝিয়েও আখেরে কোনও ফল হয়নি। শেষপর্যন্ত আর কোনও রাস্তা না পেয়ে পুলিশের হেল্পলাইন নম্বর ১০০-তে ফোন করে সাহায্যের জন্য।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কাশীপুর থানার পুলিশ যায় নাবালিকার বাড়িতে। মেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার আগে কেন তার বিয়ে দেওয়া হচ্ছে, জানতে চাওয়া হয়। এরপর ওই নাবালিকাকে উদ্ধার করে কাশীপুর থানায় নিয়ে আসা হয়। আটক করা হয় বাবা রফিকুল মোল্লাকে। ভাঙড় ২ ব্লক প্রশাসনের আধিকারিকরা পরিবারের সদস্যদের বোঝান, একজন অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়ের সময়ের আগে বিয়ে দিলে কী কী শারীরিক ও মানসিক সমস্যা হতে পারে।পাশাপাশি সুবিধা মিলবে না কন্যাশ্রী, রুপশ্রীর মত সামাজিক প্রকল্পরও। এরপর রফিকুল মোল্লা মুচলেকা দিয়ে জানান মেয়ের যতদিন না ১৮ বছর বয়স হবে ততদিন তিনি বিয়ে দেবেন না।

অন্য ভিডিও দেখুন--কাকদ্বীপে হদিশ মিলল জাল হোমিওপ‍্যাথিক ওষুধের কারখানা

First published: June 27, 2019, 6:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर