মলদ্বারে পাম্প লাইন মেশিন ঢুকিয়ে নৃশংস অত্যাচার, মৃত্যু নাবালকের

কাজে গিয়ে 'অত্যাচারে' মৃত্যু নাবালকের। মলদ্বারে ঢোকানো হয় পাম্প লাইন মেশিন ।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 05, 2019 11:29 PM IST
মলদ্বারে পাম্প লাইন মেশিন ঢুকিয়ে নৃশংস অত্যাচার, মৃত্যু নাবালকের
প্রতীকী চিত্র
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 05, 2019 11:29 PM IST

#দেগঙ্গা: কাজে গিয়ে 'অত্যাচারে' মৃত্যু নাবালকের। মলদ্বারে ঢোকানো হয় পাম্প লাইন মেশিন । দুই নাবালক সহকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ। দেগঙ্গার ফাজিলপুরের রাইহানউদ্দিনের মৃত্যু। কদম্বগাছির সেলাই কারখানায় কাজ করত। মলদ্বারে মেশিন ঢুকিয়ে হাওয়া দেওয়ার অভিযোগ। তার জেরে পেট ফুলে যায় রাইহানউদ্দিনের। হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত্যু হয় রাইহানের। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত দুই বন্ধু পলাতক।

সংসারের অভাবের ফলে নাবালক ছেলেকে বন্ধুদের সঙ্গে কাজে পাঠান মা আর তাতেই স্বপ্নভঙ্গ ৷ মাস দুয়েক আগে দুই বন্ধুর সাথে কদ্বমগাছির একটি সেলাই কারখানায় কাজে যোগ দেয় রাইহান । গতকাল দুপুরে তিন বন্ধু মিলে সেলাই কাজে ব‍্যবহারিত পেপার পাম্প লাইন মেশিন (মেশিনটি কাপড়ে নকশা করার কাজে লাগে) নিয়ে কাজ করার সময় দুই বন্ধু মিলে রাইহানের মলদ্বারে হাওয়া ঢুকিয়ে দেয় ৷ আর তাতেই নাবালকের পেটের অংশ ফুলে যেতে থাকে তড়িঘড়ি অন্যান্য শ্রমিকরা হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত্যু হয় রাইহানের।

অভিযুক্ত দুই নাবালক ঘটনার পর থেকে পলাতক । তড়িঘড়ি তাকে নিয়ে যাওয়া হয় কদ্বমগাছির একটি বেসরকারি হাসপাতালে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ভর্তি করা হয় কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালে সেইখানেই সে গভীর রাতে মারা যায়।ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত তরিকুল ইসলাম, মোস্তাকিন এখনও পলাতক। ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া ৷ ইসলাম--দত্তপুকুর থানায় অভিযোগ দায়ের। পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস মালিকের।

First published: 11:29:00 PM Sep 05, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर