corona virus btn
corona virus btn
Loading

মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন প্রকাশ্যে মাইক বাজল ! রাজনৈতিক বক্তব্য ! বিতর্ক

মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন প্রকাশ্যে মাইক বাজল ! রাজনৈতিক বক্তব্য ! বিতর্ক

মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন প্রকাশ্যে বাজানো হল মাইক! বেশ কিছুক্ষণ ধরে রাখা হল রাজনৈতিক বক্তব্যও।

  • Share this:

#বর্ধমান: মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন প্রকাশ্যে বাজানো হল মাইক! বেশ কিছুক্ষণ ধরে রাখা হল রাজনৈতিক বক্তব্যও। বৃহস্পতিবার এমনই ঘটনা ঘটলো বর্ধমানে। খবর পেয়ে বর্ধমান থানার পুলিশ গিয়ে  মাইক বন্ধ করার নির্দেশ দেয়। সেই নির্দেশের পর বন্ধ হয় মাইক। ঘটনাকে ঘিরে বিতর্ক দেখা দিয়েছে বর্ধমান শহরে।

বৃহস্পতিবার এনআরসি ও সিএএ র বিরুদ্ধে ডাকা সম্মেলনে মাইক বাজানো হল বর্ধমানে। বর্ধমানের সংস্কৃতি লোকমঞ্চে তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসির এই সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ তথা তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠনের সর্বভারতীয় নেত্রী দোলা সেন। সম্মেলন হলের ভিতরে হলেও মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন হলের বাইরে মাইক বাঁধা হয়। বেশ কিছু সময় ধরে তা বাজানোও হয়।

 বেশ কিছুক্ষণ মাইক বাজিয়ে সভা চলার পর বর্ধমান থানার পুলিশ তা বন্ধ করে দেয়। মঞ্চে তখন উপস্থিত ছিলেন দোলা সেন সহ জেলা তৃনমূল কংগ্রেসের সাধারন সম্পাদক খোকন দাস ও জেলা নেতাদের  অনেকেই।  এ ব্যাপারে দোলা সেন বলেন, আমি এই অভিযোগ মানি না। হলে ঢোকার সময় দেখেছি মাইক আছে কিনা। সেসব চোখে পড়েনি। তাছাড়া মাইক বাজলে জেলা পুলিশ সুপার তো নিজে ফোন করতেন। আমার সঙ্গে তাঁর অন্য একটি বিষয়ে কথা হয়েছে। তখনও তিনি কিছু জানাননি।

 মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন শাসক দলের শ্রমিক সংগঠনের সভা উপলক্ষে প্রকাশ্যে  মাইক বাজানো নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই বিতর্ক দেখা দিয়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন মাইক বাজানো বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকেও কোনও অনুষ্ঠানেই প্রকাশ্যে মাইক বাজানোর অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না।  ঠিক তখনই পরীক্ষা চলাকালীন জেলা শাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের অফিস লাগোয়া এলাকায় মাইক বাজানোর ঘটনায় বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

অভিভাবকদের বক্তব্য, এমনিতেই গাড়ির হর্নে কান পাতা দায়। রাস্তা লাগোয়া স্কুলগুলিতে তাতে খুবই সমস্যা হচ্ছে। এরপর বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মাইক বাজলে খুবই সমস্যা হওয়ার কথা। তবে পরীক্ষা চলাকালীন তো বটেই অন্য সময়ও এই কটা দিন সেভাবে প্রকাশ্যে মাইক বাজছে না। বাসিন্দারা এখন অনেক সচেতন। রাজনৈতিক দলগুলিও সেই সংযম দেখাচ্ছে। তাদের আরও একটু এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

SARADINDU GHOSH 

Published by: Piya Banerjee
First published: February 20, 2020, 5:58 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर