Home /News /south-bengal /
Haroa Murder: স্বামীর বন্ধুর সঙ্গে প্রেম, তার জেরেই খুন যুবক? হাড়োয়ায় দেহ লোপাটের আগেই ধরল স্থানীয়রা

Haroa Murder: স্বামীর বন্ধুর সঙ্গে প্রেম, তার জেরেই খুন যুবক? হাড়োয়ায় দেহ লোপাটের আগেই ধরল স্থানীয়রা

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার রাতে হাড়োয়ার গোপালপুরের বাসিন্দা খোকন সাহার বাড়ির পিছনের বাগান দিয়ে বস্তাবন্দি অবস্থায় মৃত যুবকের দেহ লোপাটের চেষ্টা চলছিল৷

  • Share this:

    #জিয়াউল আলম, হাড়োয়া: বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের জেরে যুবককে খুন করে দেহ লোপাটের চেষ্টা? এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করল উত্তর চব্বিশ পরগণার হাড়োয়া থানার পুলিশ৷

    স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার রাতে হাড়োয়ার গোপালপুরের বাসিন্দা খোকন সাহার বাড়ির পিছনের বাগান দিয়ে বস্তাবন্দি অবস্থায় মৃত যুবকের দেহ লোপাটের চেষ্টা চলছিল৷ তখনই বিষয়টি স্থানীয়দের নজরে পড়ে যায়৷ তাঁরাই পুলিশে খবর দেন৷ এর পর হাড়োয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বস্তা খুলতেই যুবকের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হয়৷

    আরও পড়ুন: ডায়েরির শেষ পাতায় মৃত্যুর ঠিক আগেই মায়ের জন্য শেষ 'বার্তা'... কী লিখলেন কসবার সরস্বতী?

    জানা গিয়েছে, ধৃত চার জনের নাম শম্পা সাহা, চৈতালী সাহা, চৈতালীর বাবা খোকন সাহা এবং শম্পার স্বামী৷ মৃত যুবক শম্পার স্বামীর বন্ধু বলে জানা গিয়েছে৷ কিন্তু কেন খুন হতে হল ওই যুবককে?

    আরও পড়ুন: বিদিশা-মঞ্জুষার পর সরস্বতী? ফের যুবতীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার শহরে! মৃত্যু ঘিরে বাড়ছে রহস্য

    সূত্রের খবর, স্বামীর বন্ধু হওয়ার সুবাদে শম্পার সঙ্গে ওই যুবকের বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক তৈরি হয়৷ নিহতের পরিচয় জানাল না গেলেও তাঁর বাড়ি আসানসোলে বলে জানতে পেরেছে পুলিশ৷ ধৃত শম্পার মায়ের দাবি, নিহত যুবক তাঁর মেয়েকে স্বামীকে ছেড়ে তাঁর কাছে চলে আসতে বলত৷ শম্পা কোথাও গেলে তার পিছুও নিত ওই যুবক৷ শম্পার উপরে ওই যুবক অত্যাচার করত বলেও খবর৷

    গত শুক্রবার আসানসোল থেকে শম্পা তার স্বামীকে নিয়ে হাড়োয়া গোপালপুরে বাপের বাড়িতে আসে। শনিবার দিন আসে শম্পার স্বামীর বন্ধু । গতকাল রাতে যুবকের বস্তাবন্দি রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে পুলিশের অনুমান, মাথায় ভারী কিছু দিয়ে আঘাত করে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে। কী কারণে যুবককে খুন করা হল, তা জানতে ধৃতদের জেরা করছে পুলিশ৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    Tags: Murder, North 24 Parganas

    পরবর্তী খবর