দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

নিজের ক্ষেত পাহারা দিচ্ছিলেন, শুঁড়ে পেঁচিয়ে আছড়ে মেরে ফেলল হাতি

নিজের ক্ষেত পাহারা দিচ্ছিলেন, শুঁড়ে পেঁচিয়ে আছড়ে মেরে ফেলল হাতি
Photo-Collected

মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে বাঁকুড়ায়৷ সামনে থেকে যাঁরা দেখেছেন তাঁরা এখনও শিউরে উঠছেন ভয়ে!

  • Share this:

#পশ্চিম মেদিনীপুর: মঙ্গলবার পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রশাসনিক বৈঠকে ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া ও বাঁকুড়া জেলায় হাতির আক্রমণ নিয়ে মুখ খোলেন মুখ্যমন্ত্রী।  হাতির হামলায় মৃত্যু হলে পরিবারকে আড়াই লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের পাশাপাশি পরিবারের একজনকে ফরেস্ট হোমগার্ড পদে চাকরি দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন।

সেই ঘোষণার কয়েক ঘন্টা যেতে না যেতেই হাতির হানায় বাঁকুড়া জেলায় মৃত্যু হল এক যুবকের। মৃত যুবকের নাম মিলন কারক।  বাড়ি সোনামুখী থানার কোচডিহি গ্রামে।  জানা গেছে গতকাল দুপুরে বড়জোড়া এলাকায় থাকা প্রায় চল্লিশটি হাতির দলকে তাড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় সোনামুখী ব্লক এলাকায়। রাতে স্থানীয় কোচডিহির জঙ্গলে ছিল হাতির পালটি।  সন্ধ্যা নামতেই খাবারের খোঁজে জঙ্গল ছেড়ে হাতির পালটি নেমে আসে পার্শ্ববর্তী ধানের জমিতে। নিজের জমির  ফসল বাঁচাতে অন্যান্য গ্রামবাসীর পাশাপাশি মিলন কারকও নিজের জমি পাহারা দিতে গিয়েছিলেন। জমি পাহারা দেওয়ার সময় আচমকাই হাতি আক্রমণ করে মিলন কারককে।

তাঁকে শুঁড়ে করে তুলে মাটিতে আছাড় মেরে পায়ে করে থেঁতলে দেয় হাতিটি।  ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মিলন কারকের।  পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহটি উদ্ধার করে সোনামুখী থানায় নিয়ে যায়। মিলন কারকের মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরেও বন দফতরের কর্মী ও আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে না যাওয়ায় ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারা। এদিকে বুধবার মৃতদেহটি ময়না তদন্তের জন্য বিষ্ণুপুর জেলা হাসপাতালে পাঠানো হবে। মিলন কারকের মৃত্যুর জন্য এলাকার মানুষ বন দফতরের পরিকল্পনাহীনতাকেই দায়ী করেছেন।

Mritunjoy Das

Published by: Debalina Datta
First published: October 7, 2020, 4:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर