corona virus btn
corona virus btn
Loading

৭ দিন সময় দিলাম, যাঁরা যাওয়ার চলে যান, তৃণমূল দলটা শুদ্ধ হবে: মমতা

৭ দিন সময় দিলাম, যাঁরা যাওয়ার চলে যান, তৃণমূল দলটা শুদ্ধ হবে: মমতা
  • Share this:

#কলকাতা: বাংলায় এখন পদ্মের দাপট। তৃণমূলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে বিজেপি। ভাঙছে তৃণমূলের ঘরও। এই পরিস্থিতি সামলাতে নেমে পড়েছেন তৃণমূলনেত্রী। দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদি যেদিন শপথ নেন, সেদিনই পথে নামেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নৈহাটিতে দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দেন। তারপর আবার তিনি উত্তর ২৪ পরগনায়। শুক্রবার সভা করলেন কাঁচরাপাড়ায়। দলীয় কর্মিসভা থেকে বুঝিয়ে দিলেন, বিজেপির হিন্দুত্ববাদের মোকাবিলায় তাঁর অস্ত্র বাঙালি আবেগ।

উত্তর ২৪ পরগনায় তৃণমূলের ঘর ভাঙিয়ে চারটি পুরসভা দখল করেছে বিজেপি। যার মধ্যে অন্যতম কাঁচরাপাড়া। এছাড়া, ভোটের পর থেকে উত্তর ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গায় বার বার তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষ হয়েছে। এই প্রেক্ষাপটে, এ দিন সেই উত্তর ২৪ পরগনার কাঁচরাপাড়ায় গিয়ে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কী বার্তা দেন, সে দিকে অনেকেরই নজর ছিল।

এ দিন কাঁচরাপাড়ায় মমতা যেখানে সভা করেন, সেটি বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের পাড়া। কাঁচরাপাড়া যে বীজপুর বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে পড়ে, সেখানকার বিধায়ক, মুকুল রায়ের ছেলে শুভ্রাংশু, কয়েক দিন আগেই, তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। কাঁচরাপাড়া পড়ে বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে। সেটি এবার তৃণমূলের হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়েছেন বিজেপির অর্জুন সিং। সেই কাঁচরাপাড়ার কর্মিসভা থেকে মমতা ফের বুঝিয়ে দিলেন, বাংলায় বিজেপির হিন্দুত্বের মোকাবিলায় তাঁর অস্ত্র বাঙালি আবেগ।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলায় থাকলে বাংলায় কথা বলতে হবে ৷ বাঙালিদের ভয় দেখানো চলবে না ৷ দল ছেড়ে গেলে যেতে দিন ৷ অন্য দলে গেলে যেতে দিন ৷ ৭ দিন সময় দিলাম, যাঁরা যাওয়ার চলে যান ৷ যেতে দিন তৃণমূল দলটা শুদ্ধ হবে ৷ তৃণমূল এখন মহীরূহে পরিণত ৷ হারানোর ভয় নেই ৷’

First published: June 14, 2019, 7:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर