• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • নন্দীগ্রামের মাটিতে মমতা, 'মহাযুদ্ধ' জিততে ছক কষছে তৃণমূল

নন্দীগ্রামের মাটিতে মমতা, 'মহাযুদ্ধ' জিততে ছক কষছে তৃণমূল

মমতার বিরুদ্ধে এবার বিজেপি প্রার্থীর নাম শুভেন্দু অধিকারী। যিনি কিনা মমতাকে ৫০ হাজারের বেশি ভোটে হারাবেন বলে বারবার হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন।

মমতার বিরুদ্ধে এবার বিজেপি প্রার্থীর নাম শুভেন্দু অধিকারী। যিনি কিনা মমতাকে ৫০ হাজারের বেশি ভোটে হারাবেন বলে বারবার হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন।

মমতার বিরুদ্ধে এবার বিজেপি প্রার্থীর নাম শুভেন্দু অধিকারী। যিনি কিনা মমতাকে ৫০ হাজারের বেশি ভোটে হারাবেন বলে বারবার হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন।

  • Share this:

    #কলকাতা: যুদ্ধ শুরু হয়ে গেল। প্রার্থী ঘোষণা করার পর এই প্রথমবারের জন্য নন্দীগ্রামের মাটিতে পা রাখলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যে নন্দীগ্রাম তাঁকে রাজ্যে ক্ষমতা দখলের পথ দেখিয়েছিল, সেই নন্দীগ্রামেই এবার নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছেন তিনি। যদিও এবার 'মহারণে' নামতে হচ্ছে তাঁকে। কারণ মমতার বিরুদ্ধে এবার বিজেপি প্রার্থীর নাম শুভেন্দু অধিকারী। যিনি কিনা মমতাকে ৫০ হাজারের বেশি ভোটে হারাবেন বলে বারবার হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন।

    মঙ্গলবার নন্দীগ্রামে কর্মীসভা করবেন তৃণমূল নেত্রী। বড় যুদ্ধের জন্য দলীয় কর্মীদের নির্দেশ দেবেন। তারপর নন্দীগ্রামে তাঁর জন্য বেছে নেওয়া একটি বাড়িতেই থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার হলদিয়ায় গিয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দেবেন তৃণমূল নেত্রী।

    ইতিমধ্যে দলনেত্রীর জন্য রণকৌশল তৈরি করে ফেলেছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। মমতা বন্দোপাধ্যায়ের প্রচার থেকে নির্বাচনী কাজ, সমস্তটাই দেখাশোনা করার জন্যে গঠন করা হয়েছে বিশেষ দল। এই দলের দায়িত্বে আছেন তৃণমূলের দুই রাজ্যসভার সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায় ও দোলা সেন। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে আছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পূর্ণেন্দু বসু। প্রার্থী ঘোষণার দিন মমতা নিজেও বলেন, 'পুর্ণেন্দু দা নন্দীগ্রামে আমার হয়ে কাজ করতে চান। তাই তাঁকে প্রার্থী করা হচ্ছে না।' ইতিমধ্যেই মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সমর্থনে দেওয়াল লিখন হয়ে গেছে নন্দীগ্রামে।

    তবে, পিছিয়ে নেই শুভেন্দু শিবিরও। মহারণ লড়তে শুভেন্দু সর্বত সাহায্য করছে বিজেপি। তাঁর প্রচারে পাঠানো হচ্ছে একঝাঁক শীর্ষ নেতা-নেত্রীকে। শুধু তাই নয়, আগামী ১২ মার্চ নন্দীগ্রামে মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় শুভেন্দুর সঙ্গে থাকতে পারেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি ও সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। তার আগে ১১ মার্চ হলদিয়াতে স্মৃতির সভা করারও কথা রয়েছে।

    তবে, শুভেন্দুর জন্য আসছেন খোদ নরেন্দ্র মোদিও। বিজেপি সূত্রের খবর, ১৮ মার্চ পুরুলিয়া এবং ২০ মার্চ কাঁথিতে জনসভা করবেন তিনি। আর কাঁথির সেই জনসভা থেকেই শুভেন্দুকে জয়ী করার ডাক দেবেন তিনি। সেই প্রস্তুতিও তুঙ্গে বিজেপির তরফে। রাজ্যের বিধানসভা ভোটে দুই হেভিওয়েটের লড়াইয়ে জমজমাট হয়ে উঠেছে বঙ্গ রাজনীতি। তৃণমূল নেত্রী আগেই বলে এসেছেন তিনি সব সময় প্রচারে সময় দিতে পারবেন না নন্দীগ্রামে। তবে ভোটের পরে তিনি এখানে প্রতিনিয়ত আসবেন। আর শুভেন্দু অধিকারী এই ইস্যুতেই মমতা বন্দোপাধ্যায়কে 'বহিরাগত' বলে কটাক্ষ ছুঁড়ে দিচ্ছেন। যদিও তৃণমূল নেতৃত্ব আশাবাদী, সেখানে মমতার জিততে কোনও অসুবিধাই হবে না।

    Published by:Suman Biswas
    First published: