Home /News /south-bengal /
Mamata Banerjee on Rampurhat Violence: মমতার নির্দেশের পরই আনারুলের বাড়িতে পুলিশের হানা! সেই রাতে গুরুতর অভিযোগ...

Mamata Banerjee on Rampurhat Violence: মমতার নির্দেশের পরই আনারুলের বাড়িতে পুলিশের হানা! সেই রাতে গুরুতর অভিযোগ...

আনারুল হুসেন

আনারুল হুসেন

Mamata Banerjee on Rampurhat Violence: মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরই আনারুলের বাড়িতে হানা দেয় বিরাট পুলিশ বাহিনী।

  • Share this:

    #বগটুই: বগটুইয়ের ব্লক তৃণমূল সভাপতি আনারুল হুসেনের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ। আর সেই সূত্রেই বৃহস্পতিবার বগটুই পৌঁছে আনারুল হুসেনকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee on Rampurhat Violence)। এদিন বগটুইতে দাঁড়িয়েই মমতা বলেন, ''হয় আনারুলকে আত্মসমর্পণ করতে হবে না হলে যে খান থেকে হোক গ্রেফতার করতে হবে। ও জানত। তদন্ত তদন্তের পথে চলবে। আমি এর মধ্যে কোনও ভাবে হস্তক্ষেপ করব না। দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। যে পুলিশ অফিসার এর মধ্যে জড়িত, তাঁদেরও ছাড়া হবে না।'' আর মুখ্যমন্ত্রীর এই নির্দেশের পরই আনারুলের বাড়িতে হানা দেয় বিরাট পুলিশ বাহিনী।

    সেখানে আনারুলের পরিবারের সঙ্গে কথা বলছেন পুলিশ আধিকারিকররা। পুরো ঘটনার ভিডিও রেকর্ডিংও করা হয়। প্রসঙ্গত, বগটুইয়ে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি আনারুল হুসেন। আর তাঁকেই গ্রেফতারের নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। এই পদক্ষেপের মধ্যে দিয়েই তিনি বুঝিয়ে দেন, প্রয়োজনে দলের নেতাদের গ্রেফতার করতেও পিছপা হবেন না তিনি। এদিন বগটুইতে পৌঁছেই রীতিমতো প্রশাসনিক প্রধানের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, ''এটা ভীষণ ভয়াবহ ঘটনা। আমি ভাবতে পারিনি এরকম নৃশংস ঘটনা ঘটতে পারে কখনও। শুধু কয়েকটা লোকের জন্য অশান্তির আগুন জ্বলছে। আনারুলকে জানানো সত্ত্বেও পুলিশ পাঠায়নি ও। আনারুলকে গ্রেফতার করা হবে। ও যদি আত্মসমর্পণ না করে তাহলে গ্রেফতার করতে হবে।'' যদিও গতকালই আনারুল জানিয়েছিলেন, ''আমি কোন ঘটনায় যুক্ত নই। মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে।''

    আরও পড়ুন: স্ত্রী-মেয়ে নিয়ে ভরা সংসার, রবিতেও তুমুল আনন্দ, বুধেই সব শেষ! কী হল অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের?

    সার্কিট হাউসে না গিয়ে পরিকল্পনা বদলে সরাসরি বগটুই চলে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে পৌঁছে স্বজন হারানো পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। তাঁদের পাঁচ লক্ষ টাকা আর্থিক ক্ষতিপূরণ, পরিবারের একজনকে চাকরি এবং বাড়ি সারাইয়ের জন্য এক লক্ষ টাকা করে দেওয়ার কথা জানান তিনি। বগটুই থেকে তিনি আহতদের সঙ্গে দেখা করতে যান রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে ৫ জন ভর্তি রয়েছেন। গতকালই তাঁদের আইসিইউ থেকে বার্ন ইউনিটে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

    আরও পড়ুন: অসুস্থতা ছিল না, কিন্তু বুধবার বদলে গেল পরিস্থিতি! অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর কারণ কী?

    তবে, এদিনও ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, ''সব দিক খতিয়ে দেখা হবে। কেউ ছাড় পাবে না। এমন শাস্তি দিতে হবে, যাতে অন্য কেউ কখনও এরকম কাজ করতে না পারে। যাঁরা জেনেও পুলিশকে ঠিক মতো কাজে লাগাননি, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। ভাদু শেখকে মারার ঘটনা খারাপ। তার পর যা হয়েছে, তা অত্যন্ত নিন্দনীয়।’’

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    Tags: Mamata Banerjee, Rampurhat Violence

    পরবর্তী খবর