মোদির রবিবাসরীয় সভার চূড়ান্ত প্রস্তুতি, সরকারি অনুষ্ঠানে থাকছেন না মমতা

মোদির রবিবাসরীয় সভার চূড়ান্ত প্রস্তুতি, সরকারি অনুষ্ঠানে থাকছেন না মমতা
হলদিয়ায় মোদির অনুষ্ঠানে থাকছেন না মমতা।

কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রকের অনুষ্ঠানে থাকছেন না মুখ্যমন্ত্রী অন্তত নবান্ন সূত্রে এমনটাই খবর।

  • Share this:

#হলদিয়া: ২০২১ সালে রাজ্যে প্রথম রাজনৈতিক সভা করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর সেই সভা পূর্ব মেদিনীপুরের "ভূমিপুত্র" শুভেন্দু অধিকারীর গড় দিয়েই শুরু করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। রাজনৈতিক মহলের মতে বিধানসভা ভোটের আগে নীলবাড়ি দখলের জন্য রবিবার থেকেই এ রাজ্যে নির্বাচনী প্রচার শুরু করে দিচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি। আর এই নির্বাচনের আগে মোদির প্রথম রাজনৈতিক সভা নিয়ে বিজেপিতে যেমন চূড়ান্ত ব্যস্ততা চলছে তেমনি প্রস্তুতি চলছে সরকারি তরফেও। মূলত রবিবার কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রকের একটি সরকারি অনুষ্ঠান রয়েছে হলদিয়ার হেলিপ্যাড ময়দানে। সেই ময়দানের পাশেই রাজনৈতিক সভা ও করবেন নরেন্দ্র মোদি। অন্য দিকে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রকের অনুষ্ঠানে থাকছেন না মুখ্যমন্ত্রী অন্তত নবান্ন সূত্রে এমনটাই খবর।

জানা গিয়েছে শনিবারই মুখ্যমন্ত্রী দপ্তর থেকে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে রবিবার প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে থাকতে পারছেন না মুখ্যমন্ত্রী। তারপরেই কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রকের অনুষ্ঠানে অতিথিদের বসার পরিকল্পনা পরিবর্তন করা হয়েছে। তবে প্রটোকল মোতাবেক সরকারি প্রতিনিধি থাকতে পারে বলেই সূত্রের খবর।

অন্য দিকে এ রাজ্যে সফরে আসার আগেই তিনি শনিবার বাংলায় টুইট করে মোদি বুঝিয়ে দিলেন সরকারি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তিনি রাজ্যবাসীর মন পেতে চাইছেন। এদিন সন্ধ্যায় টুইট করে তিনি লিখেছেন " আগামীকাল সন্ধ্যায় আমি পশ্চিমবঙ্গের হলদিয়ায় থাকবো। সেখানে একটি অনুষ্ঠানে বিপিসিএল নির্মিত এলপিজি আমদানি টার্মিনালটি জাতির উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করবো। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা প্রকল্পের অন্তর্গত ধোবি- দুর্গাপুর প্রাকৃতিক গ্যাস পাইপলাইন বিভাগ জাতির উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করবো।"


শনিবার সকাল থেকেই মোদির দুই মঞ্চের প্রস্তুতি তুঙ্গে দেখা গেল। সরকারি অনুষ্ঠানে লাগাই যেখানে রাজনৈতিক সভা করার জন্য মঞ্চ করা হয়েছে সেখানে লাগানো হয়েছে একাধিক এলইডি স্ক্রিন। কর্মী-সমর্থকরা যাতে বসেই মোদির বক্তব্য শুনতে পারেন তার জন্যই শুধুমাত্র সভাস্থলে নয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড়েও লাগানো হয়েছে এলইডি স্ক্রিন।বিজেপির স্থানীয় নেতৃত্তের অবশ্য দাবি রবিবারের সভাতে প্রায় ২ লক্ষ কর্মী-সমর্থকদের জমায়েত করা হবে। সভাস্থলের প্রথম দিকের রো গুলিতে চেয়ার রাখা হয়েছে কর্মী-সমর্থকদের বসার জন্য।

মূলত গত ২৩ শে জানুয়ারি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্ম জয়ন্তী পালনের জন্য একগুচ্ছ সরকারি অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। যার বেশির ভাগটাই ছিল ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে। তারপরে রবিবার ফের ১৫ দিনের মধ্যেই রাজ্যে ফের আসছেন নরেন্দ্র মোদি। এদিকে রবিবাসরীয় সফরে নরেন্দ্র মোদির পূর্ব মেদিনীপুরের হলদিয়াতে আসা কে ঘিরে কার্যত সাজো সাজো রব। গোটা হলদিয়া জুড়েই প্রধানমন্ত্রীর কাট আউট, ব্যানার ফ্লেক্সে ছেয়ে গেছে।

সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারী, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এর মত প্রাক্তন মন্ত্রী সহ বেশ কয়েকজন বিধায়ক অন্য দল থেকে বিজেপিতে এসেছে। মেদিনীপুরেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাত ধরেই দলবদল করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। মূলত তৃণমূল কংগ্রেস থেকে হেভিওয়েট নেতাদের বিজেপিতে যোগদানের পর এই প্রথমবার রাজনৈতিক সমাবেশ করতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদী। আর যেহেতু এই সভা পূর্ব মেদনীপুরে তাই এর আলাদা রাজনৈতিক তাৎপর্য রয়েছে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে রবিবারের মোদির রাজনৈতিক সভামঞ্চে থাকতে পারেন শুভেন্দু অধিকারী ও। অন্যদিকে শনিবার বিকেলের পর থেকেই দুই মঞ্চের দখল নিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা দায়িত্বে থাকা এসপিজি।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Arka Deb
First published: