প্লাস্টিক মুক্ত বাংলা, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে বাজারে এবার বাঁকুড়ার কাগজের ব্য়াগ 

প্লাস্টিক মুক্ত বাংলা, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে বাজারে এবার বাঁকুড়ার কাগজের ব্য়াগ 

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে বিশ্ববাংলায় স্থান পেলো বাঁকুড়ার কাগজের ব্যাগ।

  • Share this:

#বাঁকুড়া:  শাবতার তাস, বাহারি লণ্ঠন আর বালুচরি শাড়ি। এতদিন বাঁকুড়াকে এ ভাবেই চিনত বাংলা। সেই তালিকায় এবার যোগ হল কাগজের ব্য়াগ। সৌজন্য়ে কন্য়াশ্রীরা।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে বিশ্ববাংলায় স্থান পেলো বাঁকুড়ার কাগজের ব্যাগ। বুধবার প্রশাসনিক বৈঠকে এই নির্দেশ দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  বেলা সাড়ে বারোটায় এদিন শুরু হয় বৈঠক।। রবীন্দ্র ভবনের মঞ্চে উঠেই মুখ্যমন্ত্রী দেখেন সুদৃশ্য কাগজের রিং দিয়ে তৈরি একটি ব্যাগ রাখা হয়েছে তাঁর টেবিলে।। শৌখিন নয়, রীতিমতো শক্তপোক্ত।। ব্যাগে রাখা হয়েছে জলের বোতল, ডায়ারি । ব্যাগ দেখেই পছন্দ হয় মুখ্য়মন্ত্রীর। বৈঠক শুরুর আগেই, মুখ্য়সচিব রাজিবা সিনহাকে নির্দেশ দেন, এই ব্য়াগ যেন রাখা থাকে বিশ্ববাংলার প্রদর্শনীতে।

কে বানিয়েছেন এই ব্য়াগ গুলি ?  ব্যাগগুলি তৈরি করছে কন্য়াশ্রীর মেয়েরা। মঞ্চে তাদের ডেকে নেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়।

ততক্ষণে টিভির পর্দায় সরাসরি সম্প্রচার শুরু হয়ে গিয়েছে।  খুশির হাওয়া  বিষ্ণুপুর ব্লকে।। কারণ,  ওই ব্লকের ৪০ জন মেয়ে  তৈরি করেছে এই কাগজের ব্যাগ। প্লাস্টিক নিষিদ্ধ। অনেক দিন ধরেই চেষ্টা চলছে বিকল্প হিসেবে কাগজের ব্য়াগকে তুলে আনার। সেই চেষ্টাতেই বিষ্ণপুর ব্লকের আধিকারিক মানস মণ্ডল পরীক্ষামূলক ভাবে বেশ কয়েকজন ছাত্রী ও স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের নিয়ে এই ব্য়াগ তৈরির উদ্য়োগ  নেন।

কাগজের হলেও ভারী জিনিষ বইতে পারবে এই ব্য়াগ। সেই টার্গেট নিয়েই প্রশাসনিক উদ্য়োগে ভুবনেশ্বরের ন্যাশানল ইন্সটিটিউট অব ফ্যাশন টেকনোলজির কাছে সম্প্রতি দরবার করা হয়। মহকুমা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় প্রশিক্ষনে যোগ দেন  ৪০ জন ।

একাধিক কাগজ কেটে ছোট ছোট স্ট্রিপ বানিয়ে আটার সাহায্যে তৈরি হয় এই বিশেষ ব্যাগ।। শেষমেশ মুখ্যমন্ত্রী র উদ্যোগে কাগজের ব্যাগ এবার স্থান পেতে চলেছে বিশ্ববাংলায়।

সৌরভ গুহ

First published: February 12, 2020, 8:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर