পাখির চোখ পূর্ব বর্ধমান, মঙ্গলবার ঝড় তুলতে যাচ্ছেন মমতা

পাখির চোখ পূর্ব বর্ধমান, মঙ্গলবার ঝড় তুলতে যাচ্ছেন মমতা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল চিত্র

তাঁর এই জনসভাকে ঘিরে তৃণমূল কংগ্রেস শিবিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে।

  • Share this:

এ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন ঘোষণা আর মাত্র হাতেগোনা কয়েকটা দিনের অপেক্ষা। সরস্বতী পুজোর দু-একদিনের মধ্যেই নির্বাচনে নির্ঘণ্ট ঘোষণা হতে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তার আগেই পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনায় নির্বাচনী জনসভা করতে আসছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর এই জনসভাকে ঘিরে তৃণমূল কংগ্রেস শিবিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে। কালনায় জনসভা শেষ করে বর্ধমানের কৃষি খামারে মাটি তীর্থ কৃষি কথার স্থায়ী মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবারের মাটি উৎসবের উদ্বোধন করবেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই সফর উপলক্ষে জেলার পুলিশ ও প্রশাসনিক মহলে জোর তৎপরতা চলছে।

ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে নির্বাচনী প্রচার তুঙ্গে উঠেছে। তারই মধ্যে কালনা মহকুমায় সভা করে গিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারী। সেখানে পাল্টা সভা করেছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসও। এবার এই মহাকুমায় নির্বাচনী প্রচারে আসছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজনৈতিক মহলের মতে, বরাবরই কালনা মহকুমা জুড়ে বিজেপির একটা ভালো প্রভাব লক্ষ্য করা গিয়েছে। নদীয়া জেলা লাগোয়া পূর্ব বর্ধমান জেলার পূর্বস্থলী উত্তর ও পূর্বস্থলী দক্ষিণ বিধানসভা এলাকায় হিন্দুত্বের একটা বড় প্রভাব রয়েছে। কালনা বিধানসভা এলাকাতেও লোকসভা ভোটের ফলাফলের নিরিখে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের ঘাড়ে নিশ্বাস ফেলছে বিজেপি। ভালো ফলের আশায় বারে বারে এই এলাকাকে নির্বাচনী জনসভার জন্য বেছে নিচ্ছে গেরুয়া শিবির। তাই এই এলাকাকে প্রথম পর্যায়ের জনসভার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেছে নিয়েছেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।


মঙ্গলবার কালনার বৈদ্যপুর স্কুল মাঠে বেলা বারোটায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। বৈদ্যপুর মেমারি বিধানসভা লাগোয়া। পাশেই হুগলি জেলার পান্ডুয়া বিধানসভা এলাকা। সেজন্যই এই এলাকাকে মুখ্যমন্ত্রীর জনসভার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে। এই সভায় কালনা বিধানসভা ও তার আশপাশ এলাকার কর্মী-সমর্থকরা তো বটেই, পান্ডুয়া মেমারিতে থেকেও প্রচুর সংখ্যক কর্মী-সমর্থক আসবেন বলে তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে। কালনার এই জনসভা শেষ করে মুখ্যমন্ত্রী বর্ধমান মাটি উৎসবের প্রাঙ্গণে পৌঁছাবেন।

Published by:Arka Deb
First published: