Mamata Banerjee in Purulia: 'এমপি হয়ে ভরাডুবি!' সাংসদদের প্রার্থী করায় বিজেপি-কে তীব্র কটাক্ষ মমতার

Mamata Banerjee in Purulia: 'এমপি হয়ে ভরাডুবি!' সাংসদদের প্রার্থী করায় বিজেপি-কে তীব্র কটাক্ষ মমতার

বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন বাবুল, লকেট সহ চার সাংসদ৷

রবিবার বিজেপি যে ৬৬ জনের তালিকা প্রকাশ করে, তাতে লোকসভা এবং রাজ্যসভা মিলিয়ে চারজন সাংসদের নাম রয়েছে৷

  • Share this:

    #পুরুলিয়া: প্রথম দফার প্রার্থী তালিকায় চার জন সাংসদকে প্রার্থী করেছে বিজেপি৷ পুরুলিয়ার বলরামপুরের সভা থেকে বিজেপি-র এই সিদ্ধান্তকেই তীব্র কটাক্ষ করলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

    রবিবার বিজেপি যে ৬৬ জনের তালিকা প্রকাশ করে, তাতে লোকসভা এবং রাজ্যসভা মিলিয়ে চারজন সাংসদের নাম রয়েছে৷ বিজেপি-র তালিকা অনুযায়ী এবার বিধানসভা নির্বাচনে লড়ছেন আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়, হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়, আলিপুরদুয়ারের সাংসদ নিশীথ প্রামাণিক৷ এ ছাড়াও ভোটে লড়ছেন রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত৷

    সাংসদদের কেন বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী করতে হচ্ছে, তা নিয়ে নানা ব্যাখ্যা উঠে আসছে৷ এ দিন অবশ্য সাংসদদের প্রার্থী করায় বিজেপি-কে চূড়ান্ত কটাক্ষ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি বলেন, 'আজ পর্যন্ত দেখান তো বিজেপি একটা কাজ করেছে৷ দু' বছর আগে এখান থেকে বিজেপি জিতে গেছে৷ বাংলা থেকে আপনাদের ১৮টা এমপি৷ এখন আবার তারা এমএলএ হওয়ার জন্য ভোটে দাঁড়িয়েছে৷ এমপি হয়ে ভরাডুবি, আর এমএলএ হয়ে বাজাবে ডুগডুগি৷ জিজ্ঞেস করুন কী কী হবেন, এমপি হবেন, কুৎসা করবেন, দাঙ্গা করবেন, হামলা করবেন, অত্যাচার করবেন, চক্রান্ত করবেন৷'

    পুরুলিয়ার প্রচারে গিয়ে এ দিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্ষেপের সুরে বলেন, 'কাজের ছেলে' হওয়া সত্ত্বেও দু' বছর আগে লোকসভা নির্বাচনে হারতে হয়েছিল তৃণমূলের সাংসদ মৃগাঙ্ক মাহাতোকে৷ তাঁর অভিযোগ, মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে পুরুলিয়াতেও জিতেছে বিজেপি৷ মমতার প্রশ্ন, 'আপনারা কেউ পেয়েছেন ১৫ লাখ টাকা?'

    বিজেপি যে সাংসদদের প্রার্থী করেছে, তাঁদের মধ্যে বাবুল সুপ্রিয় টালিগঞ্জ থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন৷ ওই আসন থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও লড়তে পারেন, এমন সম্ভাবনা প্রবল৷ শেষ পর্যন্ত তাই হলে এক সাংসদের সঙ্গেই লড়তে হবে মমতাকে৷ তাঁর আগে সাংসদদের প্রার্থী করা নিয়ে বিজেপি-কে আক্রমণ শানিয়ে রাখলেন তিনি৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: