• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • ‘‘ নদী থেকে বেআইনিভাবে বালি তুললে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে ’’: মুখ্যমন্ত্রী

‘‘ নদী থেকে বেআইনিভাবে বালি তুললে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে ’’: মুখ্যমন্ত্রী

জেলার পর্যটন প্রকল্প নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

জেলার পর্যটন প্রকল্প নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

জেলার পর্যটন প্রকল্প নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #বাঁকুড়া: নদী থেকে বেআইনিভাবে বালি তোলা বন্ধে বাঁকুড়া জেলা প্রশাসনকে কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর। বললেন, বিভিন্ন জায়গায় বেআইনি ভাবে বালি তোলা হচ্ছে। এমনকী, ব্রিজের মুখ থেকেও বালি তুলে নেওয়া হচ্ছে। তৃণমূলের কেউ জড়িত থাকলেও কড়া ব্যবস্থা নিন। জেলার পর্যটন প্রকল্প নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    বৈঠকে একাধিক বিষয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। সরকারি হাসপাতালে খাবারের মান নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন তিনি ৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘বেআইনি ভাবে বিভিন্ন জায়গা থেকে বালি তোলা হচ্ছে। এসব সহ্য করব না। এমনকী, ব্রিজের মুখ থেকেও বালি তুলে নিচ্ছে। সবাই কাটমানি খাচ্ছে। আমার পার্টির লোকেরা এতে জড়িত নয়। সব আলাদা আলাদা ভাবে বেআইনি কাজ করছে। তবুও যদি কোনও তৃণমূলের লোক এই বিষয়ে জড়িত থাকে, তাহলে তার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাঁকুড়া-বীরভূম-হুগলি-নদিয়া এইসব জায়গায় বেআইনিভাবে বালি তোলা নিয়ে বাড়াবাড়ি হচ্ছে। ’’

    নদীর বুক খালি করে তুলে নেওয়া হচ্ছে বালি। নিষেধাজ্ঞা না মেনে ব্রিজের পিলারের গোড়া থেকেও বালি সরিয়ে দিচ্ছে মাফিয়ারা। কল্যাণীর ঈশ্বর গুপ্ত সেতুতে ফাটল ধরা পড়ার পর এমন অভিযোগ উঠেছে। ক্ষতিগ্রস্ত ওই সেতুর কথা উঠে এল বাঁকুড়ায় মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক বৈঠকে। সেখানেও, কংসাবতী থেকে অবৈধভাবে বালি তুলে নিচ্ছে মাফিয়ারা।

    ক্ষমতায় আসার পরেই, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের পর্যটন শিল্পের ওপর জোর দিয়েছিলেন। পুরুলিয়া-বাঁকুড়ার মতো মাওবাদী অধ্যুষিত অঞ্চলে রাজ্যের পর্যটন মানচিত্রে জায়গা করে দেওয়ার জন্য সবরকম ভাবে চেষ্টা করছেন তিনি। বাঁকুড়ার মুকুটমণিপুরকে কেন্দ্র করে যাতে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে ওঠে সেই চেষ্টাও চালাচ্ছেন।

    First published: