২ লক্ষ ছেলেমেয়ের কর্মসংস্থানের উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্য, ‘কর্মই ধর্ম’ প্রকল্পের ঘোষণা মমতার

মুখ্যমন্ত্রীর মতে, এতে কোনও একজন নয় পুরো একটা পরিবার উপকার পাবে ৷ ২ লক্ষ মানুষকে কাজের সুযোগ দেওয়া মানে দশ লাখ মানুষের অন্ন সংস্থান করা ৷’

মুখ্যমন্ত্রীর মতে, এতে কোনও একজন নয় পুরো একটা পরিবার উপকার পাবে ৷ ২ লক্ষ মানুষকে কাজের সুযোগ দেওয়া মানে দশ লাখ মানুষের অন্ন সংস্থান করা ৷’

  • Share this:

    #বাঁকুড়া: রাজ্যের বেকার যুবকযুবতীদের কর্মসংস্থান ও স্বনির্ভর করার লক্ষ্যে বড় ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৷ ঘোষণা করেন সরকারের নয়া প্রকল্প ‘কর্মই ধর্ম’ ৷ মুখ্যমন্ত্রীর আশা, এতে ২ লক্ষ যুবক-যুবতীর কর্মসংস্থান হবে, উপকৃত হবেন প্রায় ১০ লক্ষ মানুষ ৷

    মুখ্যমন্ত্রীর এদিন বাঁকুড়ার মঞ্চ থেকে বলেন, ‘এই যে মাছওয়ালারা সাইকেলে-বাইকে করে মাছ বিক্রি করেন ৷ বাইকগুলির পিছনে একটা বক্স থাকে ৷ আমরা ঠিক করেছি সরকারের তরফে ২ লক্ষ ছেলেমেয়েকে কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক থেকে কোনও ঝামেলা ছাড়াই ঋণের ব্যবস্থা করে দেব ৷ যাতে সহজে ওরা ওই বাইক কিনতে পারে ৷এতে ব্যবসার কাজে সুবিধা হবে ৷’

    মুখ্যমন্ত্রী কর্মসংস্থানের ব্যাপারে ব্যাখা করে বলেন, ‘এই প্রকল্পের নাম আমরা রেখেছি ‘কর্মই ধর্ম’৷ ওই বাইকে করে ছেলেমেয়েরা ফল, সবজি, শাড়ির মতো জিনিস নিয়ে বিক্রি করতে পারবেন ৷ কোনও কাজই ছোট নয়, কোনও কাজই খারাপ নয় ৷ এতে কোনও একজন নয় পুরো একটা পরিবার উপকার পাবে ৷ ২ লক্ষ মানুষকে কাজের সুযোগ দেওয়া মানে দশ লাখ মানুষের অন্ন সংস্থান করা ৷’

    একইসঙ্গে এদিনের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, দেশে করোনা পরিস্থিতিতে ৪০ % বেকারি বেড়েছে। ‘কিন্তু বাংলায় ৪০% শতাংশ বেকারি কমেছে।’ শুধু তাই নয়, তিনি সভামঞ্চে দাঁড়িয়ে উল্লেখ করেন, এরাজ্যে কোনও সরকারি কর্মচারীদের বেতনে কোপ পড়েনি বা বেতন বাকি থাকেনি ৷ উল্টে বাইরে থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকরাও এখানে কাজ পেয়েছেন ৷’ বছর ঘুরলেই ভোট ৷ তার আগে বেকার সমস্যার সমাধানে রাজ্যের উদ্যোগ ‘কর্মই ধর্ম’৷

    First published: