'বাম-রামে হাত মিলিয়েছে আবার', অন্ধকার 'অতীত' মনে করিয়ে সতর্কবার্তা মমতার

'বাম-রামে হাত মিলিয়েছে আবার', অন্ধকার 'অতীত' মনে করিয়ে সতর্কবার্তা মমতার

বাঁকুড়ার সভায় মমতা।

মমতার অভিযোগ, 'বিজেপি ভোটের আগে মিথ্যে কথা বলে। বিজেপি বলেছিল ১৫ লক্ষ টাকা দেবে, দিয়েছে? ভোটের আগে বলেছে চাল-ডাল দেবে। এটা বাংলার নির্বাচন, দিল্লির নয়।'

  • Share this:

    #কোতুলপুর: রবিবারই বাঁকুড়ায় জনসভা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ফের সেই বাঁকুড়াতেই সোমবার ভোটের প্রচার শুরু করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হুইলচেয়ারে বসে জনসভায় বিজেপিকে তোপ দাগেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতার অভিযোগ, 'বিজেপি ভোটের আগে মিথ্যে কথা বলে। বিজেপি বলেছিল ১৫ লক্ষ টাকা দেবে, দিয়েছে? ভোটের আগে বলেছে চাল-ডাল দেবে। এটা বাংলার নির্বাচন, দিল্লির নয়।'

    সভার শুরুতে অবশ্য সিপিএমের অত্যাচারের 'অতীত' মনে করিয়ে বাঁকুড়ার জনগনকে সতর্ক করেছেন মমতা। বামপন্থীদের অত্যাচারের ইতিহাস মনে করিয়ে মমতার দাবি, 'জয়পুর-কোতলপুর আমার খুব প্রিয় জায়গা। জয়রামবাটী সারদা মায়ের তীর্থভূমি, আমাদেরও তীর্থভূমি। আমি কোনও দিন জয়পুরকে ভুলতে পারব না। কোতলপুরকে ভুলতে পারব না। কেন জানেন? আমি যখন বিরোধী দলে ছিলাম তখন, সিপিএমের হার্মাদরা, যারা এখন বিজেপির ওস্তাদ হয়েছে, তারা সেদিন কী অত্যাচার করত। যারা এখন তৃণমূলের গদ্দার, যারা এখন বিজেপির ওস্তাদ হয়েছে তারা তখন কী অত্যাচার করত। আমি এসছিলান বিক্রমপুর সালামদের গ্রামে। পুলিশ আমাকে ঢুকতে দিচ্ছিল না। আমি এক পা এক পা করে ঢুকেছিলাম। কেন ঢুকেছিলাম? আমার একটা ভাই ছিল সালাম, সে মারা গেছে কিছুদিন আগে। তাঁর দুই ভাই জওয়ান পরিবারের সদস্য। তাঁদের বাড়িতে দুজনকে বাড়ি থেকে ঢুকিয়ে, ছেলেকে খুন করে মায়ের কোলে ছেলের মুণ্ডু দিয়ে দিয়েছিল। মৃত্যুর আগে ছেলে একটু জল চেয়েছিল। মা গিয়েছিল জল আনতে। এসে দেখে ছেলের কাটা মুণ্ডু পড়ে আছে। আমি তাঁদের বাড়িতে গিয়েছিলাম, বিক্রমপুরের সেই গ্রামে। সালাম এর পর আমার বাড়িতে যেত। ও আমার কাছে ভাইফোঁটা নিত। কিন্তু আমি সেই বিক্রমপুরের অত্যাচার কখনও ভুলব না। আমি গিয়েছিলাম গোপীনাথপুর শিহরে। আমি আগেরদিন গিয়েছিলাম, সেখানে সিপিএম বন্দুক নিয়ে মানুষকে খুন করা হয়েছে। মানুষরা পুকুরের জলে ডুবে বসে ছিলেন। সেখানে আমাকে বলা হয়েছিল, দিদি আমাকে বাঁচান। আমি ভুলিনি সেই সব দিন। '

    এদিন মমতার গলায় পুরনো দিনের কথা মনে করিয়ে হুঙ্কার, 'কোতলপুরে কোতল করা ছাড়া আর কী করতেন? সেই জয়পুর আজ বদলে গিয়েছে, রেল লাইন তৈরি হয়ে গেলে সব বদলে যাবে। ৭২ হাজার কোটি টাকার শিল্প হবে। বাঁকুড়া তীর্থভূমি।'

    সালামদার স্ত্রী জাভেদা বিবি এদিন মঞ্চেই ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পিছনে বসে। সেই মঞ্চ থেকে ফের একবার সিপিএম ও বিজেপির আঁতাতের অভিযোগ করেন মমতা। তাঁর দাবি, 'সিপিএম-কংগ্রেস বিজেপির সঙ্গে ডিল করেছে। ওদের ডিলটাকে খিল করে দিন। বাইরে থেকে বর্গী আসছে। বর্গী ও বহিরাগত গুণ্ডাদের বিরুদ্ধে মা বোনেরা জোট বাঁধুন। ওরা ভেবেছিল আমি পায়ে চোট পেলে আর বাইরে আসব না। আমার নিঃশ্বাস যতক্ষণ চলবে, ততক্ষণ এক ইঞ্চি জমি ছাড়ব না। মা বোনেদের জীবন বাঁচানোর লড়াই এই লড়াই। মনে রাখবেন, আমি ভাঙি তবু মচকাই না। আমি বাইরে থাকলে এক পা দিয়ে এমন শট মারব, মাঠের বাইরে করে দেবো। আমি মা বোনেদের পা দিয়ে হাঁটি।'

    এদিন ফের একবার পেট্রোপণ্যের দাম নিয়ে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন মমতা। তাঁর দাবি, 'বিনা পয়সায় চাল দিচ্ছি, সেই চাল রান্না হচ্ছে ৯০০ টাকার গ্যাসে। নরেন্দ্র মোদি তোমাকে বিনা পয়সায় গ্যাস দিতে হবে। সব বিক্রি করে দিচ্ছে বিজেপি।'

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    লেটেস্ট খবর