দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

টাকা দিয়ে পচা-ধসা বিধায়ক কিনে তৃণমূলকে কেনা যায় না, বোলপুর থেকে কটাক্ষ মমতার

টাকা দিয়ে পচা-ধসা বিধায়ক কিনে তৃণমূলকে কেনা যায় না, বোলপুর থেকে কটাক্ষ মমতার
মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়৷

তৃণমূল ভাঙিয়ে ঘর ভরাচ্ছে বিজেপি ৷ সেই প্রবণতাকেই তীব্র কটাক্ষ তৃণমূল নেত্রী ৷

  • Share this:

#বোলপুর: একুশের কুরুক্ষেত্রের আগে ভোটের ময়দানে জার্সিবদল পালা ৷ বিধায়ক থেকে সাংসদ, কর্মী থেকে নেতা জোড়াফুল ছেড়ে পদ্মে আরোহণের ঢল রাজ্য রাজনীতিতে ৷ তৃণমূল ভাঙিয়ে ঘর ভরাচ্ছে বিজেপি ৷ সেই প্রবণতাকেই তীব্র কটাক্ষ তৃণমূল নেত্রী ৷ বোলপুরের সভা থেকে বিজেপিকে নিশানা করে মমতার কটাক্ষ- ‘ কটা এমএলএ কিনে তাও পচা ধসা, ভাবছে পুরো তৃণমূলটাকে খেয়ে নেবে.. এতো সোজা!’

রোড শো, পদযাত্রা নয়, এদিন ছিল তৃণমূলের শক্তি প্রদর্শনের পরীক্ষা ৷ দলত্যাগের হিড়িকের মাঝে জনপ্রিয়তা জনসমর্থন যাচাই করে নেওয়াই ছিল এদিন জোড়াফুল শিবিরের মূল উদ্দেশ বলে মত রাজনৈতিক মহলের ৷ অনুব্রতর গড়ে ২০ ডিসেম্বর শাহের রোড শোয়ের ৯ দিনের মাথায় মমতার জবাব ৷ কাতারে কাতারে মানুষ রাস্তার দুপাশে শুধু তৃণমূল সুপ্রিমোকে দেখতেই ভিড় জমিয়েছিলেন ৷ এই রোড শোয়ের আয়োজনের দায়িত্বে থাকা বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের দাবি, টার্গেট ছিল দেড়লক্ষ সেখানে তিন লক্ষ মানুষেরও বেশি মানুষ এসেছেন ৷ এরা শুধু বোলপুর সাবডিভিশনের বাসিন্দা বলে দাবি কেষ্টর ৷

৪ কিলোমিটার পদযাত্রার শেষে দলনেত্রীর বক্তব্যের নিশানায় বিজেপি ৷ টাকা দিয়ে বিধায়ক কেনার অভিযোগ ফের মমতার মুখে ৷ কয়েক দিন আগেই তৃণমূলের ঘর ভেঙেছে বিজেপি। শুভেন্দুর মতো হেভিওয়েট নেতা এখন বিজেপি। এই প্রেক্ষাপটে, মঙ্গলবার বোলপুরের সভা থেকে সুর চড়ান মমতা। নিশানায় বিজেপি।

শাহের সোনার বাংলা তৈরির মন্তব্যেরও পাল্টা এদিন তোপ দাগেন তৃণমূলনেত্রী ৷ বলেন, ‘বাংলার মাটি। এ মাটি সোনার বাংলাকে উপহার দিয়েছে। নতুন করে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখানোর প্রয়োজন নেই। সোনার বাংলার সৃষ্টি বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৷’

সামনে লড়াই। একুশের কুরুক্ষেত্র। মমতার ভরসা একুশে জুলাইয়ের আবেগ। তৃণমূলের একুশের সমাবেশ মানেই উৎসাহ-উদ্দীপনা-ভিড়-স্লোগান ৷ এ দিন বোলপুরের সমাবেশের শেষেও মমতার গলায় শোনা গেল সেই একই রকম স্লোগান। একুশের জুলাইয়ের মতো স্লোগান। পাখির চোখ একুশের ভোট।

আবির ঘোষাল

Published by: Elina Datta
First published: December 29, 2020, 3:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर