মাতৃভবন ভেঙে অনুষ্ঠান বাড়ি, কারখানা, ক্ষুব্ধ মহিষাদলবাসী

হাসপাতাল ভেঙেই তৈরি হচ্ছে কারখানা, অনুষ্ঠান ভবন। ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 03, 2019 12:26 PM IST
মাতৃভবন ভেঙে অনুষ্ঠান বাড়ি, কারখানা, ক্ষুব্ধ মহিষাদলবাসী
Photo- Video Grab
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 03, 2019 12:26 PM IST

#হলদিয়া: ১৯৫৬ সালে মহিষাদলে মাতৃভবন হাসপাতাল তৈরি করেন স্বাধীনতা সংগ্রামী সুশীলকুমার ধারা। তা ভেঙেই অনুষ্ঠান বাড়ি তৈরি করছে মাতৃভবন সমিতি। ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকার সর্বস্তরের মানুষ। কমিটির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার কথা ভাবছেন তাঁরা। ঘটনা খতিয়ে দেখার আশ্বাস জেলা প্রশাসনের।

স্বাধীনতার দশ বছরও তখন কাটেনি। অন্তঃসত্ত্বাদের পরিষেবা দেওয়ার মতো কোনও পরিকাঠামোই ছিল না মহিষাদলে। রাস্তাঘাটের অবস্থাও ছিল তথৈবচ। অন্তঃসত্ত্বাদের দুর্দশা বুঝেছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামী সুশীলকুমার ধারা। উনিশশো ছাপ্পান্ন সালে তাঁর উদ্যোগেই তৈরি হয় মাতৃভবন। যার প্রতিটা ইটে জড়িয়ে মহিষাদলের আবেগ। এবার সেই হাসপাতাল ভেঙেই তৈরি হচ্ছে কারখানা, অনুষ্ঠান ভবন। ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

মাতৃভবনকে সংরক্ষণ করা হোক। দাবি মহিষাদলবাসীর।মাতৃভবন সমিতির দাবি, এলাকাবাসীর স্বার্থেই তৈরি হচ্ছে ধূপ, মোমবাতি, বোতল তৈরির কারখানা। এলাকার মহিলারাই কাজ পাবেন সেখানে। কম টাকায় অনুষ্ঠান বাড়ি ভাড়া করতে পারবেন স্থানীয়রা।

এলাকাবাসীর দাবি, বর্তমান সমিতির মাতৃভবনের ভোলবদলের অধিকার নেই। বিষয়টি নিয়ে তাই আদালতে যাওয়ার কথা ভাবছেন স্থানীয়রা। ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক পার্থ ঘোষ।

আরও দেখুন

Loading...

First published: 12:26:17 PM Sep 03, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर