Home /News /south-bengal /
Madan Mitra: 'চির দিনই, তুমি যে আমার', ভক্তকূলের দাবিতে মঞ্চে উঠে গান ধরলেন মদন

Madan Mitra: 'চির দিনই, তুমি যে আমার', ভক্তকূলের দাবিতে মঞ্চে উঠে গান ধরলেন মদন

গান ধরলেন মদন মিত্র৷

গান ধরলেন মদন মিত্র৷

সম্প্রতি দলের নির্দেশে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দূরে থাকার বার্তা দিয়েছেন কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক ()।

  • Share this:

#বর্ধমান: 'চির দিনই, তুমি যে আমার, যুগে যুগে আমি তোমারই...', ফের গান গাইলেন মদন মিত্র।  এবার পূর্ব বর্ধমানের উচালনে কৃষি মেলায় মঞ্চ মাতালেন  তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক মদন মিত্র (Madan Mitra)।

সম্প্রতি দলের নির্দেশে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দূরে থাকার বার্তা দিয়েছেন কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক। তবে ফেসবুক থেকে দূরে থাকলেও গায়ক মদনের (Madan Mitra) গান বন্ধ হয়নি৷ তাই মদন মিত্র মঞ্চে উঠতেই মেলায় উৎসাহী বাসিন্দাদের মধ্যে থেকে গানের অনুরোধ আসে। নিরাশ করেননি তৃণমূল বিধায়ক। সহশিল্পীদের সঙ্গে গেয়ে ওঠেন 'চিরদিনই তুমি যে আমার'। এ দিন অবশ্য বর্ধমানের এই অনুষ্ঠানে হাজির থাকার সময় মদন মিত্র ফেসবুক পেজ থেকে লাইভ করা হয়৷

আরও পড়ুন: পৌঁছেছে কড়া নির্দেশ, বড় সিদ্ধান্ত নিলেন মদন মিত্র! চরম আফসোস 'ভক্তকূলে'

করোনা আবহের মধ্যেই শনিবার উচালন কৃষি-শিল্প, মৎস্য, প্রাণী ও সাংস্কৃতিক মেলা ২০২২ উদ্বোধন হল রায়না ২ ব্লকের উচালন ফুটবল মাঠে। ফিতে কেটে মঞ্চের উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রীর কৃষি উপদেষ্টা প্রদীপ মজুমদার।

আরও পড়ুন: রাজনীতিতে এনেছিলেন পার্থ, ওঁর সম্পর্কে কটু মন্তব্য নয়, স্পষ্ট করলেন মদন

প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে মেলার উদ্বোধন করলেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি তথা অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। এ ছাড়া মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক মদন মিত্র, রায়নার বিধায়ক তথা পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া, আরামবাগ লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ অপরূপা পোদ্দার, আরামবাগ পুরসভার চেয়ারম্যান স্বপন নন্দী  সহ অন্যান্যরা। কোভিড বিধি মেনে ২২ জানুয়ারি থেকে ২৮ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে এই মেলা।

মদন মিত্র বলেন, 'আমাদের দেশ গ্রাম ভিত্তিক কৃষি নির্ভর দেশ। মিশ্র অর্থনীতির কথা বলা হলেও কৃষির উপর দেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা অনেকাংশে নির্ভরশীল। গ্রামগুলি সুন্দর না হলে কোনও রাজ্য এগিয়ে যেতে পারে না। পাঞ্জাব হরিয়ানার গ্রামগুলির বিকাশ ঘটেছে বলেই আজ এত বড় কৃষি আন্দোলন সংঘটিত হলো। তেমনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দক্ষতায় এ রাজ্যের গ্রামগুলির যথেষ্ট বিকাশ ঘটেছে। এই মেলা গুলিতে করোনার ঝুঁকি রয়েছে। তাই সাবধানতা মেনে এই ধরনের মেলার আয়োজন করতে হবে। আজ গ্রাম বাংলার মানুষ মেলায় এসে প্রমাণ করছে তারা আর গৃহবন্দি থাকতে নারাজ।'

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Madan Mitra, Purba bardhaman, TMC

পরবর্তী খবর