corona virus btn
corona virus btn
Loading

পঞ্চম দফার ভোট আগামিকাল, একনজরে উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্র

পঞ্চম দফার ভোট আগামিকাল, একনজরে উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্র
  • Share this:

#উলুবেড়িয়া: ২০০৯ ও ২০১৪ সালে এই কেন্দ্র থেকে জয়ী হন তৃণমূল কংগ্রেসের সুলতান আহমেদ ৷ ২০১৭ সালে সুলতান আহমেদের মৃত্যুর পর ২০১৮ সালে এই কেন্দ্রের সাংসদ হন তাঁর স্ত্রী সাজদা আহমেদ ৷ উপনির্বাচনে তাঁর জয়ের ব‍্যবধান ছিল ৪ লক্ষ ৭৪ হাজার ২০১ ৷ এবারও তিনিই তৃণমূল প্রার্থী ৷ এই কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী জয় বন্দ‍্যোপাধ‍্যায় ৷ অন্যদিকে সিপিআইএমের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন মাকসুদা খাতুন ৷ কংগ্রেসের হয়ে লড়বেন সোমা রানিশ্রী রায় ৷ জয়ের ব‍্যবধান আরও বাড়বে বলেই দাবি তৃণমূল শিবিরের ৷

রাত পোহালেই এই কেন্দ্রে মাইক্রো অবজারভারের সংখ্যা ৩৩০ ৷ ১৩৪টি ভিডিও ক্যামেরা দিয়ে কড়া নজরদারি চালাবে নির্বাচন কমিশন ৷ ৮১৭ টি সিসিটিভি লাগানো থাকবে ৷ যাতে সর্বক্ষণ নজর রাখবে নির্বাচন কমিশনের আধিকারিকরা ৷ ২৬৯টি বুথে চলবে ওয়েব কাস্টিং ৷ উলুবেড়িয়াতে মোট ১৫৫৩ রকমের কমিশনের পর্যবেক্ষণের আওতায় থাকবে পঞ্চম দফার ভোট ৷

এক বছর আগের উপনির্বাচনের ফল অনুযায়ী দ্বিতীয় স্থানে ছিল বিজেপি। তখন প্রার্থী ছিলেন অনুপম মল্লিক। কিন্তু এবার প্রার্থী বদল করে উলুবেড়িয়ায় জয় বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়কে প্রার্থী করেছে পদ্ম শিবির। এই আসনে বেশ কয়েকটি তথ‍্য আশা জাগাচ্ছে পদ্মশিবিরকে। ২০১৬ সালের পর এলাকায় ক্রমশ এগিয়েছে বিজেপি ৷ গত পঞ্চায়েত ভোটে বাগনানের বেশ কয়েকটি পঞ্চায়েতে ভাল ফল করেছে বিজেপি ৷ চেঙ্গাইলে উলুবেড়িয়া পুরসভার ৬টি ওয়ার্ডের দখল রয়েছে পদ্ম শিবিরের হাতে ৷ বাউড়িয়া, কুলগাছিয়া, গঙ্গারামপুর, বানিবনের মতো বেশ কিছু এলাকায় বিজেপির পকেট ভোট ৷

তবে, অশনি সংকেতও দেখছেন বিজেপির একাংশ। ভূমিপুত্র অনুপমকে সরিয়ে বহিরাগত প্রার্থী চাপিয়ে দেওয়া নিয়ে চাপা অসন্তোষ তৈরি হয়েছে বিজেপি কর্মীদের মধ‍্যে। এছাড়াও ফুলচাষিদের মধ‍্যে জিএসটি, নোটবন্দি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতি ক্ষোভ জমেছে। আমতার বাসিন্দারা বন‍্যায় কেন্দ্রের সাহা‍য‍্য পান না বলে তাদের মুখেও বঞ্চনার অভিযোগ।

উপনির্বাচনে তৃতীয় হয়েও দ্বিতীয় স্থানে থাকা বিজেপির সঙ্গে বিশেষ ব‍্যবধান ছিল না সিপিএমের। ১৯৭১ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত এই আসনের দখল ছিল সিপিএমের হাতেই। তাই এই আসনে এখনও একটা ফ‍্যাক্টর বামভোট।  ল‍্যাডলো, কানোরিয়ার মতো বন্ধ মিল এলাকার মানুষের মধ‍্যে ইউনিয়নের কারণে এখনও বেশ কিছুটা দাপট রয়েছে সিপিএমের। তবে অধ‍্যাপিকা মাকসুদা খাতুন এলাকার বাসিন্দা হলেও উলুবেড়িয়ার রাজনীতিতে পরিচিত মুখ নন। এই চিন্তা বেশ কিছুটা ভোগাচ্ছে সিপিএমকে।

বাম আমল থেকেই উলুবেড়িয়ায় কংগ্রেসের হাতে রয়েছে আমতা বিধানসভা। এই বিধানসভা এলাকা থেকে বেশ কিছুটা ভোট দখলে রাখবে কংগ্রেস। এছাড়াও উলুবেড়িয়ায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বিভিন্ন কংগ্রেসি ভোটারের ওপর আস্থা রাখছেন কংগ্রেস প্রার্থী সোমা রানিশ্রী রায়।

উলুবেড়িয়া লোকসভায় ২১ শতাংশ সংখ‍্যালঘু ভোট। ৪ শতাংশ তপশিলী সম্প্রদায়ের ভোট। এই ভোটব‍্যাঙ্কও প্রভাব ফেলবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

First published: May 5, 2019, 7:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर