সাপ উদ্ধারে গেলেই টাকা চাইছেন স্থানীয়রা! সমস্যায় পরিবেশকর্মীরা

সাপ উদ্ধারে গেলেই টাকা চাইছেন স্থানীয়রা! সমস্যায় পরিবেশকর্মীরা
  • Share this:

Ujjal Roy

#কলকাতা: সাপ ধরতে গিয়ে মানুষের বাধার মুখে পড়তে হচ্ছে পরিবেশ কর্মীদের। অনেক জায়গাতে বিক্ষোভের মুখেও পড়তে হচ্ছে তাঁদের ৷

কোথাও সাপ দেখা গেলে কখনও এলাকার মানুষ, কখনও বা বন দফতরের কাছ থেকে খবর পেয়ে দ্রুত সেই স্থানে ছুটে যান বিজ্ঞান মঞ্চের কর্মীরা। সাপটিকে উদ্ধার করেন। এর ফলে যেমন সাপ ও মানুষ দু’য়েরই প্রাণ রক্ষা সম্ভব হয় ৷ তেমনই সেই এলাকায় সাপ নিয়ে সচেতনতার প্রচারও করে ফেলেন তাঁরা ৷

তবে ইদানিং সেই কাজটি করতে যথেষ্টে বেগ পেতে হচ্ছে তাঁদের। সম্প্রতি উত্তর ২৪ পরগণার বেশ কয়েকটি জায়গায় সাপ ধরা পড়েছে। তাদেরই উদ্ধার করতে গিয়ে বেশ কয়েক জায়গায় বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয়েছে বিজ্ঞান মঞ্চের কর্মীদের। বিজ্ঞান মঞ্চের উত্তর ২৪ পরগণা জেলা কমিটির সদস্য দিবাকর মল্লিক জানান, সাপ ধরতে গেলে এলাকার মানুষের একাংশ টাকা দাবি করেন। তাঁদের বক্তব্য, এই সাপ অথবা সাপের বিষ বিক্রি হয়। তাহলে তাঁদেরও এই টাকার ভাগ দিতে হবে। তিনি বলেন, "গত শনিবার সোদপুরে একটি চন্দ্রবোড়া সাপ উদ্ধার করতে গিয়েছিলাম ৷ তখনই এলাকার মানুষের একাংশ টাকা দাবি করেন ৷"

অনেক সময় আবার সাপ উদ্ধার করতে না দিয়ে এলাকার মানুষই পিটিয়ে মেরে দিচ্ছে তাদের। জেলার বিজ্ঞান মঞ্চের আর এক কর্মী মফিউল ইসলাম বলেন, "দু'দিন আগে মধ্যমগ্রাম এলাকায় আমরা সাপ উদ্ধার করতে গিয়েছিলাম কিন্তু আমাদের উদ্ধার করতে দেওয়া হয়নি। তার আগেই এলাকার মানুষ সেই সাপটিকে পিটিয়ে মেরে দিয়েছে। তাদের বক্তব্য, সাপ উদ্ধার করে আবার যদি ছেড়েই দেন তাহলে কী লাভ। সেটা তো আবার বাড়িতে ঢুকবে ৷"

পশ্চিবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চের রাজ্য কমিটির সদস্য দেবাশিষ রায়ের মতে, এই ধরনের ঘটনার জন্য মূলত দায়ী মানুষের অসচেতনতা। একটা সময় সাপুরিয়াদের বিরুদ্ধে সাপ ও সাপের বিক্রি করার অভিযোগ ছিল। সেই সাপুরিয়াদের সঙ্গে মানুষ পরিবেশ কর্মীদের গুলিয়ে ফেলছেন। এর পাশাপাশি তিনি বলেন, "সাপ উদ্ধার করার পর কাছাকাছি কোনও এলাকায় ছেড়ে দেওয়াই নিয়ম। তাই মানুষের আরও সচেতনতার প্রয়োজন। তা না হলে এটা বন্ধ হবে না। মধ্যমগ্রামের মতো আরও অনেক জায়গায় সাপের মৃত্যু হবে ৷"

এই বিষয়ে ওয়াইল্ড অ্যনিমেল রেসকিউ সেন্টারের ডেপুটি রেঞ্জার শিবানন্দ জোদদার জানান, বন দফতরের তরফ থেকে নিয়মিত প্রচার সচেতনতা শিবির করা হয়ে থাকে। এর ফলে অনেক মানুষকে সচেতন করা গিয়েছে। তবে পরিবেশ কর্মীদের সমস্যার বিষয়টা নিয়ে দফতরের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হবে ৷

First published: 10:23:13 PM Dec 02, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर