• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • রাত পোহালেই গড়াবে রেলের চাকা, বারাসত স্টেশনের সুরক্ষাবিধি খতিয়ে দেখলেন রেল-প্রশাসনিক কর্তারা

রাত পোহালেই গড়াবে রেলের চাকা, বারাসত স্টেশনের সুরক্ষাবিধি খতিয়ে দেখলেন রেল-প্রশাসনিক কর্তারা

দীর্ঘ সাড়ে সাত মাস অপেক্ষার অবসান। রাত পোহালেই গড়াবে রেলের চাকা। তাই লোকাল ট্রেন চালু হওয়ার আগে ব্যবস্থাপনা খতিয়ে দেখতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বারাসত স্টেশনে পরিদর্শনে আসেন বারাসত-র SDPO সত্যবত চক্রবর্তী।

দীর্ঘ সাড়ে সাত মাস অপেক্ষার অবসান। রাত পোহালেই গড়াবে রেলের চাকা। তাই লোকাল ট্রেন চালু হওয়ার আগে ব্যবস্থাপনা খতিয়ে দেখতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বারাসত স্টেশনে পরিদর্শনে আসেন বারাসত-র SDPO সত্যবত চক্রবর্তী।

দীর্ঘ সাড়ে সাত মাস অপেক্ষার অবসান। রাত পোহালেই গড়াবে রেলের চাকা। তাই লোকাল ট্রেন চালু হওয়ার আগে ব্যবস্থাপনা খতিয়ে দেখতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বারাসত স্টেশনে পরিদর্শনে আসেন বারাসত-র SDPO সত্যবত চক্রবর্তী।

  • Share this:

#বারাসত: সাড়ে সাত মাস অপেক্ষার অবসান। রাত পোহালেই গড়াবে রেলের চাকা। তাই লোকাল ট্রেন চালু হওয়ার আগে ব্যবস্থাপনা খতিয়ে দেখতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বারাসত স্টেশনে পরিদর্শনে আসেন বারাসত-র SDPO সত্যবত চক্রবর্তী। সঙ্গে ছিলেন বারাসত থানার IC দীপঙ্কর ভট্টাচার্য, স্টেশন ম্যানেজার জয়দেব মন্ডলও। বারাসত স্টেশনের টিকিট কাউন্টার থেকে শুরু করে বিভিন্ন দিক ঘুরে ঘুরে খুঁটিনাটি বিষয় খতিয়ে দেখেন তাঁরা। ইতিমধ্যে স্টেশনে যাত্রীদের প্রবেশ ও বাইরে যাওয়ার আলাদা আলাদা জায়গা চিহ্নিত করা হয়েছে। সেখানে গার্ডরেল দিয়ে ঘিরে দেওয়া হবে বলে জানা গেছে রেল সূত্রে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বারাসত স্টেশনের ১ নম্বর প্ল্যাটফর্ম থেকে ৫ নম্বর প্ল্যাটফর্ম পর্যন্ত গোলাকৃতি চিহ্ন দিয়ে স্থান নির্দিষ্ট করা হয়েছে।

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, স্টেশনের ভিতরে ব্যবস্থাপনা দায়িত্বে থাকবেন রেল পুলিশ কর্মীরা।বাইরের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকবেন রাজ্য পুলিশের কর্মীরা। কে কীভাবে তাঁর দায়িত্ব পালন করবেন সে বিষয়টি নিয়ে স্টেশন ম্যানেজারের সাথে এদিন পর্যালোচনা করেন বারাসতের SDOP সহ পুলিশ কর্তারা।

বুধবার শিয়ালদহ থেকে বনগাঁর উদ্দেশ্যে প্রথম ট্রেন ছাড়বে সকাল ৫:৫৪ মিনিটে।আবার বনগাঁ থেকে শিয়ালদার উদ্দেশ্যে প্রথম ট্রেন ছাড়বে রাত ২:৫৮ মিনিটে।সবমিলিয়ে ট্রেন চালু হওয়ার পর পরিস্থিতি মোকাবিলা করাই এখন চ্যালেঞ্জ রেল ও রাজ্য পুলিশের কাছে।

Published by:Shubhagata Dey
First published: