• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • তৈরি হল টাস্কফোর্স, ভ্যাকসিনের জন্য ডাক্তার নার্স স্বাস্থ্যকর্মীর তালিকা পূর্ব বর্ধমানে 

তৈরি হল টাস্কফোর্স, ভ্যাকসিনের জন্য ডাক্তার নার্স স্বাস্থ্যকর্মীর তালিকা পূর্ব বর্ধমানে 

ভ্যাকসিন এলে সুষ্ঠুভাবে তা দ্রুত বন্টন করতে জেলা পর্যায়ে বিশেষ টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে।

ভ্যাকসিন এলে সুষ্ঠুভাবে তা দ্রুত বন্টন করতে জেলা পর্যায়ে বিশেষ টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে।

ভ্যাকসিন এলে সুষ্ঠুভাবে তা দ্রুত বন্টন করতে জেলা পর্যায়ে বিশেষ টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: করোনার ভ্যাকসিন আসার প্রতীক্ষার মাঝেই করোনা যোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করল পূর্ব বর্ধমান জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর। ডাক্তার নার্স স্বাস্থ্য কর্মী সহ সামনের সারির করোনা যোদ্ধাদের অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে করানোর ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই এই জেলায় ভ্যাকসিনের জন্য 32 হাজার করোনা যোদ্ধার নাম নথিভূক্ত করেছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর। ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য টাস্ক ফোর্স গঠন করেছে পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন।

রাজ্যের অন্যান্য জেলাগুলির মতই পূর্ব বর্ধমান জেলার করোনার সংক্রমণ অব্যাহত। এ দিন পর্যন্ত এই জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে নয় হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। এদিন পর্যন্ত 9516 জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। তাদের মধ্যে 8769 জন চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে 604 জন করোনা আক্রান্ত চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গত চব্বিশ ঘন্টায় এই জেলায় সত্তর জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এদিন পর্যন্ত জেলায় একশো তেতাল্লিশ জন পুরুষ মহিলা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন বলে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে।

করোনা সংক্রমণে রাশ টানা না যাওয়ায় উদ্বিগ্ন জেলার বাসিন্দারা এখন ভ্যাকসিন আসার অপেক্ষায় দিন গুনছেন। ভ্যাকসিন এলে সুষ্ঠুভাবে তা দ্রুত বন্টন করতে জেলা পর্যায়ে বিশেষ টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। ওই টাস্ক ফোর্স অতিরিক্ত জেলাশাসক (স্বাস্থ্য),জেলা পুলিশ সুপার, আই এম এর প্রতিনিধিরা রয়েছেন। সোমবার জেলাশাসকের নেতৃত্বে টাস্ক ফোর্সের প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে ভ্যাকসিন এলে তা কিভাবে বন্টন করা হবে সে ব্যাপারে প্রাথমিক আলোচনা হয়। জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের এক আধিকারিক জানান, নির্দিষ্ট সময় অন্তর বা প্রয়োজনের ভিত্তিতে বৈঠকে বসে ভ্যাকসিন বন্টনের রূপরেখা তৈরি করবে টাস্ক ফোর্স। পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসক মহম্মদ এনাউর রহমান বলেন, রাজ্যের গাইডলাইন মেনে জেলায় কমিটি গড়ে কাজ করা হচ্ছে।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিক পর্যায়ে 32 হাজার জন প্রথম সারির করোনা যোদ্ধার নামের তালিকা ভ্যাকসিনের জন্য পাঠানো হচ্ছে। সরকারি বেসরকারি সব ডাক্তার নার্স স্বাস্থ্যকর্মীরাই অগ্রাধিকারের তালিকায় রয়েছে। তার মধ্যে স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর সঙ্গে যুক্ত যাঁরা সরাসরি করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছেন তাঁদের আগে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: